ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কেমন হলো মাঠের ফেরা

কেমন হলো মাঠের ফেরা

তামিম-সাকিব-মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৩:১৯

বিপিএল সমাগত হলেই নাকি ক্রিকেটারদের মাঝে একটা ‘জোশ’ চলে আসে। ছোটখাটো চোট তো বটেই, হাত-পা ভাঙার মতো গুরুতর জখমও কী এক অজানা সঞ্জীবনী টনিকে সেরে যায়! অথচ এই ক্রিকেটাররাই জাতীয় দল কিংবা প্রথম শ্রেণির ম্যাচের আগে আচমকা চোটে পড়ে যান। এবার বিষয়টি ভিন্ন মাত্রা পেয়েছে বিপিএল দিয়ে কয়েকজন তারকা ক্রিকেটারের লম্বা বিরতি থেকে মাঠে ফেরার কারণে।

তারকাদের মধ্যে বিশ্বকাপের পর এই প্রথম মাঠে নামলেন সাকিব আল হাসান। আঙুলের চোট, চোখের সমস্যা এবং জাতীয় নির্বাচনের কারণে লম্বা সময় মাঠের বাইরে ছিলেন তিনি। যদিও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে পরের দিন সকালেই অনুশীলনে নেমে পড়েছিলেন তিনি। তবে ৭৪ দিন পর মাঠে নেমে ব্যাট হাতে মোটেও স্বাচ্ছন্দ্য ছিলেন না সাকিব। ৩ বলে ২ রান করে বোল্ড হয়েছেন। খালেদের ইনসুইং ডেলিভারিটি অবশ্যই দুর্দান্ত ছিল, কিন্তু সাকিবের ব্যাট চালানোও ঠিক ছিল না। গুড লেন্থে পড়ে ভেতরে আসা বলে তিনি ক্রস ব্যাটে খেলতে গেলেন, বলের নাগালই পেলেন না। বল হাতে অবশ্য ভালো করেছেন। ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে ইব্রাহিম জাদরান ও মুশফিকুর রহিমকে আউট করেছেন। এর মধ্যে মুশফিকের স্টাম্প ছত্রখান করে দেওয়া ডেলিভারিটি তো দুর্দান্ত ছিল। 

১১৮ দিন পর মাঠে নেমে ভালোই করেছেন আরেক তারকা তামিম ইকবাল। ২৪ বলে ৫টি চার ও ১টি ছয়ে ৩৫ রান করেছেন। এর মধ্যে ডাউন দ্য উইকেটে নবিকে মারা ছয়টি দেখে বোঝা গেছে তিনি ভালো প্রস্তুতি নিয়েই নেমেছেন। তবে এই নবিকে আবার ডাউন দ্য উইকেটে মারতে গিয়ে স্টাম্পডও হয়েছেন তিনি।

তবে সবচেয়ে চোখে লেগেছে মাশরাফি বিন মুর্তজার ফেরা। ২৫০ দিন পর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলতে নেমে জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক বল করেছেন হেঁটে হেঁটে। তিন কদম দৌড়ে বল করে তিনি আবার উইকেটও পেয়েছেন! ৪০ বছর বয়সী এ পেসার প্রথম বলেই চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের তিন নম্বরে নামা ইমরানুজ্জামানের উইকেট পেয়েছেন। মাশরাফির এই উইকেট যেন বিপিএলের আসল চেহারাটা সবার সামনে তুলে ধরেছে। এই বোলিং-ব্যাটিংয়ে বিপিএল নিয়ে বিসিবি কর্তাদের বড় বড় কথা একেবারেই হাস্যকৌতুকে পরিণত করেছে। 

মাশরাফি এই তিন কদম দৌড়ে বল করার পেছনে কারণ রয়েছে। আট মাস ধরে তিনি আক্ষরিক অর্থেই ক্রিকেটে নেই। গত বছর মে মাসে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে সর্বশেষ মাঠে নেমেছিলেন। এর মধ্যে গত মাস দুয়েক ব্যস্ত ছিলেন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে। টানা দ্বিতীয়বারের মতো সংসদ সদস্যও নির্বাচিত হয়েছেন। মাশরাফির এই বোলিংয়ের রহস্য পরিষ্কার হয়েছে তাঁর ছোট ভাই মোরসালিন বিন মুর্তজার একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে, ‘পায়ে ব্যথায় দাঁড়াইতে কষ্ট হচ্ছিল। আমাকে বলেছিল, বিপিএলের সময় অস্ট্রেলিয়া যাবে। অপারেশন করাতে। আর করতেছেটা কী! খালি মিথ্যা কথা কয়।’ 

খেলার প্রতি এবং দলের প্রতি মাশরাফির নিষ্ঠা বোঝাতেই হয়তো এ স্ট্যাটাস দিয়েছেন তাঁর ভাই। কিন্তু এমন আনফিট অবস্থায় খেললে তো দলের ক্ষতির সম্ভাবনাই বেশি থাকে। যদিও জানা গেছে, পায়ের অবস্থা ভালো না বলে মাশরাফি নাকি খেলতে চাননি। কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের জোরাজুরিতে তাঁকে নামতে হয়েছে। এটা তো আরও বড় অপেশাদারিত্ব।

আরও পড়ুন

×