আদালতে বড় জয় পেলেন সার্বিয়ান টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ। করোনা টিকা না নেওয়ায় জকোভিচের ভিসা বাতিল করে তাকে আটক করেছিল অস্ট্রেলিয়ার সরকার। স্বস্তিতে সার্বিয়ার টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ । সোমবার কোর্ট জানিয়ে দেয়, সার্বিয়ান তারকার ভিসা বাতিল করা যাবে না। এতে অস্ট্রেলিয়া থেকে বহিষ্কার করা যাবে না জোকারকে। এবারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে দেখা যাবে বিশ্বের এক নম্বর পুরুষ টেনিস তারকাকে।

জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া সরকার ফের আদালতে গিয়ে জকোভিচের ভিসা বাতিল করার আবেদন জানাতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলতে সেদেশে যাবার পর থেকেই সমস্যা শুরু জকোভিচের সঙ্গে।  নিজের যুক্তিতে অনড় নোভাক জকোভিচ। কিছুতেই করোনার টিকা তিনি নেবেন না। টিকাকরণ সম্পূর্ণ না হওয়ায় বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকাকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ঢুকতেই দিতে চাইছিল না অস্ট্রেলিয়ার প্রশাসন।

জকোভিচের এই সমস্যায় পড়ার পিছনে অনেক অংশে দায়ী অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রধান ক্রেগ টিলে। এক কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে তিনি ক্রমাগত নির্দেশিকা বদল করেছেন। অপর দিকে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন আগেই টেনিস অস্ট্রেলিয়া'কে জানিয়েছিল প্রতিযোগীদের ভিসা পাওয়ার গাইডলাইনের বিষয়ে। মূলত আয়োজকদের ব্যর্থতায় এই ভাবে ভুগতে হয়েছে বর্তমান বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকাকে। 

২০১৯, ২০২০ এবং ২০২১ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে পুরুষদের সিঙ্গলসে বিজয়ী নোভাক। মোট ৯বার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেছেন সার্বিয়ার এই টেনিস তারকা। দুই অপর প্রতিদ্বন্দ্বী রাফায়েল নাদাল এবং রজার ফেদেরারের সঙ্গে একই গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ের নীরিখে একই বিন্দুতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন জোকার। এই তিন টেনিস তারকাই ২০টি করে গ্র্যান্ডস্ল্যাম জিতেছেন। আসন্ন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিততে পারলে নাদাল-ফেদেরারকে ছাপিয়ে যাবেন জকোভিচ। একক ভাবে পুরুষদের মধ্যে শীর্ষ গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ের নজির গড়বেন।