হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে আগামীকাল অ্যাশেজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টে মুখোমুখি হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। এবারই প্রথম হোবার্টের ভেন্যুতে অ্যাশেজের কোন টেস্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তাই ঐতিহাসিক এই টেস্টটি জিতে স্মরনীয় করতে রাখতে চায় দুই দলই। ইতোমধ্যে প্রথম তিন টেস্ট জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিতের পাশাপাশি ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ টেস্ট ড্র হয়েছে। এতে পঞ্চম টেস্টটি নিয়মরক্ষার। তারপরও জয় দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করার লক্ষ্য দু'দলের। 

পূর্বের সূচি অনুযায়ী, পাঁচ ম্যাচের অ্যাশেজ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টটি হবার কথা ছিলো পার্থে। কোভিড-সংক্রান্ত বিধিনিষেধের কারণে পঞ্চম ও শেষ টেস্টটি পার্থ থেকে হোবার্টে সরিয়ে নেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।

অ্যাশেজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টটি হতে যাচ্ছে দিবা-রাত্রির। অ্যাডিলেডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচও দিবা-রাত্রির ছিলো। ফলে এবারের অ্যাশেজে দু'টি দিবা-রাত্রির টেস্ট দেখবে ক্রিকেট বিশ্ব। হোবার্ট টেস্টটি বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টায় শুরু হবে। 

প্রথম টেস্ট জয়ের নায়ক ট্রাভিস হেড তৃতীয় ম্যাচের পর করোনায় আক্রান্ত হন। তার পরিবর্তে প্রায় আড়াই বছর পর একাদশে সুযোগ পেয়েই চতুর্থ টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেন উসমান খাজা। ম্যাচে যথাক্রমে ১৩৭ ও অপরাজিত ১০১ রানের ইনিংস খেলেন খাজা। এরমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন হেডও। তাই একাদশ নিয়ে অম্লমধুর সমস্যায় পড়ে যায় অসিরা। তাই হেড ও খাজা দুজনকে একসাথে রেখেই শেষ টেস্ট খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অজিরা 

হেডকে দলে টানায় জায়গা ছাড়তে হয়েছে ওপেনার মার্কাস হ্যারিসকে। ডেভিড ওয়ার্নারের সাথে ইনিংস উদ্বোধন করবেন খাজা। হেড মিডল-অর্ডারেই খেলবেন। এমনটাইও জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। তিনি বলেন, 'একাদশে ফিরছেন হেড। পাঁচ নম্বরেই ব্যাট করবেন তিনি। দল থেকে বাদ পড়ছেন হ্যারিস। খাজাকে ওপেনিংয়ে দেখা যাবে।'

কামিন্স আরও বলেন, 'পাঁজরের ইনজুরি থেকে এখনো পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠেননি বাঁ-হাতি পেসার স্কট বোল্যান্ড। পুরোপুরি ফিট হলেই, শেষ টেস্টে খেলতে পারবেন বোল্যান্ড। যদি বোল্যান্ড না খেলতে পারেন তবে একাদশে দেখা যাবে ঝেই রিচার্ডসনকে।'

অন্যদিকে একাদশ যেমনই হোক না কেন জয় দিয়ে অ্যাশেজ শেষ করতে চাওয়া ইংল্যান্ডের রুট বলেন, 'এবারের অ্যাশেজে আমাদের কোন সাফল্যই নেই। প্রথম তিন টেস্ট হেরে সিরিজ হেরেছি। চতুর্থ টেস্ট ড্র করেছি। তাই আমাদের সাফল্যের ঘর শুন্য। তবে জয় দিয়ে সিরিজ শেষ করার সুযোগ থাকছে। আশা করি এবারের সিরিজের সেরা ম্যাচটা শেষ টেস্টেই খেলবো আমরা। ভালোভাবে সিরিজটা শেষ করতে পারবো।'

সিরিজের প্রথম তিন টেস্ট যথাক্রমে ৯ উইকেটে, ২৭৫ রানে ও ইনিংস ও ১৪ রানে জিতে অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ টেস্ট ড্র হয়।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসরে ৪ ম্যাচ খেলে ৩ জয় ও ১ ড্রতে পূর্ণ ৪০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে অস্ট্রেলিয়া। আর ৯ ম্যাচে ১ জয়, ৫ হার ও ২ ড্রতে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের নবম ও তলানিতে ইংল্যান্ড। এখন পর্যন্ত আইসিসি নিয়ম ভঙ্গের কারণে ১০ পয়েন্ট কাটা হয়েছে ইংলিশদের।

অস্ট্রেলিয়া দল: 

প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), র্মাকাস হ্যারিস, ডেভিড ওয়ার্নার, র্মানাস লাবুশেন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল মার্শ, নিক ম্যাডিনসন, জন ইংলিস, উসমান খাজা, ক্যামেরন গ্রিন, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজলেউড, নাথান লিয়ন, ঝেই রিচার্ডসন, মাইকেল নেসার, স্কট বোল্যান্ড ও মিচেল সোয়েপসন।

ইংল্যান্ড দল: 

জো রুট (অধিনায়ক), বেন স্টোকস, জেমস এন্ডারসন, জনি বেয়ারস্টো, ডম বেস, স্টুয়ার্ট ব্রড, ররি বার্নস, জস বাটলার, জ্যাক ক্রলি, হাসিব হামিদ, ড্যান লরেন্স, জ্যাক লিচ, ডেভিড মালান, ক্রেইগ ওভারটন, ওলি পপ, ওলি রবিনসন, ক্রিস ওকস ও মার্ক উড।