অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায় মাতিয়ে অনেকেই জায়গা করে নেন জাতীয় দলে। তাদের কেউ কেউ চলে যান সেরাদের কাতারে। এমন ১১ ক্রিকেটারকে নিয়ে আইসিসি সাজিয়েছে একটি একাদশ। সে একাদশে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে কোহলি, স্মিথ, উইলিয়ামসনদের সঙ্গে জায়গা করে নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ভারতের বিরাট কোহলি, পাকিস্তানের বাবর আজম, নিউজিল্যান্ডের কেইন উইলিয়ামসন, ইংল্যান্ডের ক্রিস ওকস, অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথের মতো সেরা ক্রিকেটাদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রথম পদক্ষেপ ছিল অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ। অপেক্ষাকৃত তরুণ তারকাদের মধ্যে মিরাজ ছাড়াও আছেন শিমরন হেটমেয়ার, শাহীন শাহ আফ্রিদি ও কাগিসো রাবাদা।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে দীনেশ চান্দিমাল, ইয়ন মরগান ও ক্রিস ওকস আছেন এই একাদশে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে দেওয়া হয়েছে এই একাদশের অধিনায়কের মর্যাদা।

মিরাজকে নিয়ে আইসিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, 'হেটমেয়ারের মত মিরাজ ২০১৬ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে অধিনায়ক ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেমিফাইনালে ব্যাট হাতে ৬ নম্বরে নেমে ৬০ রান করেন এবং বল হাতে ওপেনার বোলার হিসেবে দুটি উইকেট শিকার করেন। টুর্নামেন্টে চার ফিফটির সাথে ১২ উইকেট ছিল তার।'

আরো বলা হয়েছে, 'একই বছরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক ঘটে। তিনি ১৭৮ আন্তর্জাতিক উইকেট শিকার করেছেন এবং ৬ বছর পার করার পর টেস্টে ১ হাজারেরও বেশি রান আছে।'

আইসিসির সেরা একাদশ:

বাবর আজম, বিরাট কোহলি, স্টিভ স্মিথ, কেইন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), দিনেশ চান্দিমাল, ওইন মরগান, শিমরন হেটমেয়ার, মেহেদি হাসান মিরাজ, ক্রিস ওকস, শাহিন শাহ আফ্রিদি ও কাগিসো রাবাডা।