দু'দিন আগে আসর শুরু হলেও চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ মাঠে নামছে আজ। যুব বিশ্বকাপের শিরোপা ধরে রাখার মিশনে জুনিয়র টাইগারদের প্রতিপক্ষ আজ ইংল্যান্ড। বিগ ম্যাচ দিয়েই আসরে নামছেন রকিবুল-নওরোজরা। সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্কে আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে এতদিন 'ডার্ক হর্স' হিসেবে দেখা হলেও দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত গত আসরে শিরোপা জয়ের পর সবার ভাবনা বদলে গেছে। জুনিয়র টাইগারদের এবারের আসরের অন্যতম ফেভারিট হিসেবে দেখা হচ্ছে। আর টুর্নামেন্টের সম্ভাব্য তারকা হিসেবে দেখা হচ্ছে বাংলাদেশের দুই ব্যাটার প্রান্তিক নওরোজ নাবিল ও আইচ মোল্লাকে। তবে এবার করোনার কারণে গত আসরের মতো ভালো প্রস্তুতি নিয়ে যেতে পারেনি বাংলাদেশ। তবে অধিনায়ক রকিবুল হাসান প্রস্তুতি নিয়ে সন্তুষ্ট। তার দৃঢ়বিশ্বাস, নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে এবারও ভালো কিছু করবে টাইগাররা। আর লম্বা প্রস্তুতি না থাকলেও অভিজ্ঞতার কারণে তারা সেটি উতরে যাবেন বলেও বিশ্বাস তার। 

গত বিশ্বকাপজয়ী স্কোয়াডের চারজন আছেন এবারের দলে। অবশ্য এর মধ্যে প্রান্তিক নওরোজ নাবিল ও মেহরোব হাসান স্কোয়াডে থাকলেও মাঠে নামার সুযোগ পাননি। অধিনায়ক রকিবুল ও পেস অলরাউন্ডার তানজিম হাসান সাকিব গতবারের শিরোপা জয়ের অভিজ্ঞতা দলের সবার সঙ্গে ভাগাভাগি করছেন। এবারের বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে বড় শক্তি অলরাউন্ডাররা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দলের স্পিনাররা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারেন।

তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষায় পড়বে টাইগাররা। অধিনায়ক টম প্রেস্টের নেতৃত্বে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন নিয়ে নামছে ইংলিশরা। এর মধ্যে ক'দিন আগে টম প্রেস্ট হ্যাম্পশায়ার দ্বিতীয় একাদশের হয়ে ত্রিপল সেঞ্চুরি করেছেন। এ ছাড়া বারবাডোজে জন্মগ্রহণ করা অলরাউন্ডার জ্যাকব বেথহেলও দলটির নির্ভরযোগ্য তারকা। টাইগারদের ব্যাটিং লাইনের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিতে পারেন পেসার সনি বাখের। গত সেপ্টেম্বরে উইন্ডিজের বিপক্ষে ৪-২-এ সিরিজ জয়ে তিনি ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি।