জিতলে সেমিফাইনাল, হারলে বিদায় এমন ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দলের বিপক্ষে শুরুতে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ২৭৪ রান তুলেছিল ভারতীয় নারী দল। সংগ্রহটা খারাপ হয়নি।

ওপেনার স্মৃতি মান্দানা ৮৪ বলে ছয়টি চার ও এক ছক্কায় ৭১ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন। অন্য ওপেনার সেফালি ভার্মা ৪৬ বলে করেন আট চারে ৫৩ রান। তাদের ওপেনিং জুটিতে আসে ৯১ রান।

মিডল অর্ডারে মিতালি রাজ ৮৪ বলে ৬৮ রানের ইনিংস খেলেছেন। তার সঙ্গে পাঁচে নামা হরমনপ্রীত কাউর করেন ৫৭ বলে ৪৮ রান।

জবাব দিতে নামা দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দল শুরুতে উইকেট হারালেও ঘুরে দাঁড়ায়। ওপেনার লাউরা উলভার্ট ৭৯ বলে ৮০ রান করেন। তিনে নামা লারা গোডাল করেন ৪৯ রান। পাঁচে নামা মিগল ডু প্রিজ ৫২ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে দলকে জয় এনে দেন।

হারতে বসা দলকে ম্যাচে ফেরান হরমনপ্রীত। তিনি দুই উইকেট তুলে নেন। রান আউট করিয়ে দু’জনকে সাজঘরে ফেরান। তারপরও ইনিংসের শেষ বলে জয় তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়া নারীদের জয়ে সেমিফাইনালে উঠে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী দল।

গত আসরে সেমিফাইনাল খেলা ভারত গ্রুপ পর্বে বিদায় নিলেও অধিনায়ক মিতালি রাজ বলছেন ভারতীয় নারী ক্রিকেটের ভালো ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে, ‘টুর্নামেন্টে উত্থান-পতন ছিল। শুরুতে ম্যাচ হেরেছি আবার ঘুরেও দাঁড়িয়েছি। এমনকি আজও। অসাধারণ এক ম্যাচ হয়েছে। আমি মনে করি, ভারতীয় নারী দলের ভালো ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে।’

মিতালি জানান, তাদের বিশ্বকাপ দলে অনেকে ছিলেন অনভিজ্ঞ। তারা অনেক কিছু এই বিশ্বকাপ থেকে শিখেছেন। তার মতে, শেফালি ভার্মা, ইয়াশতিকা ভাটিয়া, রিচা চাড্ডা বিশ্বকাপে ভারতের প্রাপ্তি। তারা সামনে আরও ভালো ক্রিকেট খেলবেন বলে উল্লেখ করেন ভারতীয় অধিনায়ক।