২০০৮ সালের উদ্বোধনী আসর থেকে চেন্নাই সুপার কিংসের নেতৃত্বে ছিলেন মাহেন্দ্র সিং ধোনি। চেন্নাইকে ৯ বার ফাইনালে তুলে চারবার শিরোপা জেতান তিনি। কিন্তু চলতি প্রতিযোগিতা শুরুর আগে হঠাৎ করে নেতৃত্ব দিয়ে দেন রবীন্দ্র জাদেজার হাতে। নতুন অধিনায়ক যে সুবিধা করতে পারছেন না সেটা বুঝতে সময় লাগল ৮ ম্যাচ, আর এরপরই আবার অধিনায়কত্বে ফিরে গেলেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান এবং জেতালেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে।

কাল ম্যাচশেষে ধোনি জানালেন হঠাৎ করে জাদেজার অধিনায়কত্ব ছাড়ার কারণ। তিনি বলেন, 'মৌসুম শুরু হওয়ার আগেই আমি চেন্নাইকে জানিয়েছিলাম, অধিনায়ক থাকব না। জাদেজা জানত দায়িত্বটা ওকেই নিতে হবে। সে মানসিকভাবে তৈরি হওয়ার সময় পেয়েছিল। হঠাৎ করে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।'

মাঠে সব সময়ই মনে হয়ছে ছায়া-অধিনায়কত্বটা যেন ধোনিই করছেন। এ নিয়ে জাদেজার সমালোচনাও কম হয়নি। তবে এ বিষয়ে ধোনির ব্যাখ্যা খুব পরিষ্কার, 'জাদেজা প্রথমবারের মতো অধিনায়ক হয়েছে। ওকে কয়েকটা ম্যাচে পরামর্শ দিয়েছি। নানাভাবে সাহায্য করেছি। পরে ওকে বলেছি, সব দায়িত্ব ওকেই নিতে হবে। কেউ যেন না বলে যে কেবল টস করতে যাওয়াই তোমার কাজ। অধিনায়কত্ব এমন একটা জিনিস, যেটি রপ্ত করতে হয়। এটা চামচে করে নিয়ে খাইয়ে দেওয়ার কিছু নয়। একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সাহায্য করা যায়। এরপর যা দায়িত্ব, নিজেকেই নিতে হয়।'

অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়ে চাপে ছিলেন জাদেজা। সেটির প্রভাব পড়েছে তার পারফরম্যান্সেও। এই অলরাউন্ডারের সেরা ইনিংস কলকাতার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ২৬ রান। বল হাতে বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ৩৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট, এছাড়া কেবল আর দুই ম্যাচে একটি করে উইকেট নেন।