দ্বিতীয় ডার্বি ম্যাচের আগেই লিগ শিরোপা নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথা অনুযায়ী তাই গার্ড অব অনার পাওয়ার কথা ছিল লস ব্লাঙ্কোসদের। কিন্তু ঘরের মাঠে ভক্তদের সম্মানে প্রতিপক্ষের সামনে লাইন ধরে মাথা অবনত না করার সিদ্ধান্ত নেয় রোজি ব্লাঙ্কোসরা।

প্রাপ্য গার্ড অব অনার যেমন পায়নি রিয়াল। তেমনি চ্যাম্পিয়ন দলটি ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোয় পায়নি প্রত্যাশিত জয়। ডিয়াগো সিমিওনের দলের কাছে হেরেছে ১-০ গোলে। সম্মানের লড়াইয়ে মাঠে এবং ম্যাচে সম্মান বঞ্চিত হয়েছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

রোববার রাতের ম্যাচে ৪০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে জয় এনে দেন ইয়ানিক কারাসকো। বেলজিয়াম ফরোয়ার্ডের বিতর্কিত ওই পেনাল্টিতে নির্ধারণ হয় ম্যাচের ফল। ম্যাচে তারা বেশ কিছু সুযোগও হারিয়েছে। আবার ছয়টি গোল হওয়ার মতো আক্রমণ করে জালে বল পাঠাতে পারেনি রদ্রিগো-লুকা জোভিক। 

হারের দায় অবশ্য রিয়াল কোচ আনচেলত্তিকেই নিতে হবে। লিগ নিশ্চিত হওয়ায় এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠে যাওয়ায় গা ছাড়া ভাব দেখিয়েছেন তিনি। শুরুর একাদশে করিম বেনজেমা, লুকা মডরিচ, ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে খেলাননি। এমনকি বিশ্রামে রেখেছিলেন থিবো কর্তোয়া, দানি কারভাহাল ও ফারল্যান্ড মেন্ডিকেও।

রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে এই জয়ে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা অনেকটাই নিশ্চিত হলো অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের। গত মৌসুমের লিগ চ্যাম্পিয়নরা ৩৫ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে চারে। সমান ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে আছে রিয়াল বেটিস। রোজি ব্লাঙ্কোসদের সুযোগ আছে সেভিয়াকে হটিয়ে তিনে থেকে মৌসুম শেষ করার।