করোনামুক্ত হয়ে শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। আজ ব্যাট হাতে নেটে করেছেন প্র্যাকটিসও। ৩৫ মিনিটের ব্যাটিংয়ে বেশ সাবলীল দেখা গেছে সাকিবকে। 

বাঁহাতি অলরাউন্ডারে ব্যাটিংয়ে সবটা নজর ছিল বাংলাদেশের কোচের। সাকিব যখন বললেন, তার ব্যাটিংটা ভালো হচ্ছে। তখন এগিয়ে গিয়ে বাংলাদেশ কোচ জানালেন, 'লেটস সি, হোপ ফর দ্য বেস্ট'।

সাকিবের ব্যাটিংয়ে ভরসা পেয়েছেন অধিনায়ক মুমিনুল হকও। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে সাকিবের খেলার কথা নিশ্চিত করেছেন তিনি। মুমিনুল বলেন, 'অনুশীলনে সাকিব ভাইকে দেখে আমার কাছে ভালোই মনে হয়েছে।' কাল একাদশে থাকবেন কি না, এমন প্রশ্নে মুমিনুল বলেন, 'হ্যাঁ, তিনি খেলবেন।'

অনুশীলনে নামার আগে কোচ ডমিঙ্গোর সঙ্গে আলাদা কথা বলেন সাকিব। প্রথমে সাকিবকে থ্রো করেন ডমিঙ্গো নিজেই, পরে নেটের পেছনে সরে গিয়ে নিবিড়ভাবে দেখেন সাকিবের ব্যাটিং। বাঁহাতি স্পিনারদের বলে সাকিবকে স্লগ সুইপে ছক্কা মারতে দেখে বাহবা দেন ডমিঙ্গো।

স্পিনে তার ব্যাটিং উইকেটের পেছন থেকে দেখেছেন ডমিঙ্গো। এর আগে শুরুতে তাকে পাখির চোখে পরখ করেন সিডন্স। ডমিঙ্গোর সঙ্গে সাকিবের কথোপকথন কিছুটা শোনা গিয়েছিল পাশ থেকে। যেখানে ডমিঙ্গো তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, কেমন অনুভব করছ? সাকিবের উত্তর ছিল এক শব্দে, 'গুড।'

এরপর কয়েকটি বল খেলার পর নিজ থেকেই বলেছেন, 'ব্যাটিং ইজ ফাইন।'

যদিও আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে সাকিবের না খেলার আভাসই মিলেছিল কোচ ডমিঙ্গোর কণ্ঠে। কোভিড থেকে সেরে উঠে হুট করে একটি টেস্ট খেলা যে কত কঠিন তিনি তা বলেছিলেন জোর দিয়ে। এমনকি ৫০-৬০ শতাংশ ফিট সাকিবকে খেলার পক্ষে ছিলেন না তিনি।