প্লে অফ নিশ্চিত করা গুজরাট টাইটান্সের বিপক্ষে ৮ উইকেটের বড় জয় পেয়েছে রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। দলের জয়ে বিরাট কোহলি খেলেছেন ৭৩ রানের ইনিংস। ৫৪ বলে খানিকটা দেখে-শুনে আটটি চার ও দুই ছক্কায় ওই রান করেন তিনি। ১৬৯ রান তাড়া করেন সাবলীলভাবে। 

তার ওই ইনিংসে ব্যাঙ্গালুরুর শেষ চারে যাওয়ার আশা বেঁচে আছে। সঙ্গে ফর্মে ফেরার আভাস দিয়েছেন কোহলি। ম্যাচ শেষে সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক বলেছেন, মোহাম্মদ শামিকে প্রথম বাউন্ডারি মেরেই তিনি বুঝেছিলেন রান পাবেন। এছাড়া ফর্মে ফিরতে মরিয়া ডানহাতি এই তারকা নেটে ৯০ মিনিট টানা অনুশীলন করেছেন বলেও উল্লেখ করেন। 

আইপিএলের সম্প্রচার মাধ্যমকে ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিতে এসে ওপেনার কোহলি বলেন, ‘দলের জন্য রান করতে পারছিলাম না, হতাশ লাগছিল। কে কী বলছে তা নিয়ে আমি মোটেও চিন্তিত ছিলাম না। দলের দরকারে রান পেয়েছি। এই ফর্মটা এগিয়ে নিতে চাই। অনেক পরিশ্রম করেছি। গতকালও নেটে ৯০ মিনিট অনুশীলন করেছি।’ 

তিনি বলেন, ‘শামির বলে প্রথম শট মেরেই আমি বুঝতে পারি যে, লেন্থ বলগুলো ফিল্ডারের মাথার ওপর দিয়ে খেলতে পারবো। আমি বুঝতে পেরেছিলাম, এই ম্যাচে রান পেতে যাচ্ছি। অনেকে আমাকে এই ফরম্যাটে সমর্থন দিয়ে গেছেন। তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। এতো ভালোবাসা আমি আগে পাইনি।’ 

গুজরাটের বিপক্ষে জয়ে ফ্যাফ ডু প্লেসি, বিরাট কোহলির ব্যাঙ্গালুরু ১৪ ম্যাচে আট জয়ে চারে উঠেছে। এক ম্যাচ কম খেলে সমান জয় পেয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। সেরা চারে কোহলিদের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী এখন ঋষভ পান্ত-মুস্তাফিজদের দিল্লি ক্যাপিটালস। দলটি এক ম্যাচ কম খেলে সাত ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে। ১৪ ম্যাচে ১০ ও ৯ জয় নিয়ে যথাক্রমে গুজরাট ও লখনউ প্লে অফ নিশ্চিত করেছে।