রিয়ার মাদ্রিদে খেলার স্বপ্ন পায়ে ঠেলেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। পিএসজি থেকে যাওয়ার কারণ হিসেবে জানিয়েছেন, ক্লাবটির ইতিহাসের অংশ হতে চান, নতুন যুগের শুরু চান এবং নতুন প্রজেক্টের অংশ হতে চান। 

সংবাদ মাধ্যম দাবি করেছে, পিএসজির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করে এমবাপ্পে মোটা অঙ্কের সাইনিং বোনাস ও বেতনের পাশাপাশি পাচ্ছেন ক্ষমতা। তার কথা শুনে প্রজেক্ট তৈরি করা হবে। কোচ-ডিরেক্টর নিয়োগে তার পরামর্শ শোনা হবে। 

ওই ক্ষমতা বলে পিএসজি বোর্ডের কাছে নতুন প্রজেক্ট গড়তে বার্সেলোনার ডাচ মিডফিল্ডার ফ্রেঙ্কি ডি জংকে চেয়েছেন এমবাপ্পে। তার চাওয়া মতো, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে পিএসজি ডি জংকে কেনার লড়াইয়ে নেমেছে। সংবাদ মাধ্যম স্পোর্টস এমনই দাবি করেছে। 

বার্সেলোনা ফ্রেঙ্কিকে আর্থিক কারণে বিক্রি করতে চায়। বাজারে তার চাহিদা থাকায় ঘরে তুলতে চায় মোটা অঙ্কের অর্থ। ম্যানইউ আগ্রহ দেখানোয় কাতালানরা ৮০ মিলিয়ন ইউরো দাম হেঁকেছে। তবে ম্যানইউ নাকি আরেকটু কম দামে তাকে দলে চায়। 

পেট্রো ডলারের ঝনঝনানি নিয়ে পিএসজি বাজারে নামলে ডি জংয়ের জন্য প্রত্যাশিত দামই পাবে বার্সেলোনা। তবে ডি জংয়ের সামনে দাঁড়াবে কঠিন সিদ্ধান্ত। তাকে জানতে হবে, সাবেক সতীর্থ মেসির ক্লাবে যাবেন নাকি সাবেক গুরু টেন হাগের সঙ্গে জুটি গড়বেন ওই প্রশ্নের উত্তর।