ঢাকা টেস্টের তৃতীয় দিন গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার কথা ছিল। হয়তো ম্যাচের পথ নির্ধারণ হয়ে যেত তৃতীয় দিনই। তবে বেরসিক বৃষ্টি ওই পথ ভিজিয়েছে। বৃষ্টি বিঘ্নিত দিনে জোড়া উইকেট নিয়েছেন সাকিব। একজন ৮০ রান করা দিমুথ করুনারত্নে, অন্যজন ৫৮ রান করে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। দুটি আউটই চোখে লেগে থাকার মতো। 

করুনারত্নে অফ স্টাম্পের বাইরে পড়া বল খেলতে গিয়ে বোল্ড হয়েছেন। ধনাঞ্জয়া ফ্লাইট হয়ে আসা বলটি লাফিয়ে উঠলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। রিভিউ নিয়ে উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। সাকিবের ওই বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসে প্রশংসা করলেন টাইগার পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড। 

শেন ওয়ার্ন যেমন তার লেগ স্পিনের ভেলকি দিয়ে স্টাম্পের বাইরে বল ফেলে ব্যাটারকে বোল্ড করেছেন। সাকিবও করেছেন তেমনটা। ডোনাল্ড তাই বলেন, ‘সাকিবের মতো একজনকে আপনি কী শেখাবেন, এইটা আমার প্রশ্ন। শেন ওয়ার্নের মতো অভিজ্ঞ সে। আমি তাকে এবং হেরাথকে দেখি মাঝে মধ্যে গভীর মনোযোগ দিয়ে স্পিন নিয়ে আলাপ করে।’ 

সাকিবের বড় ভক্ত বাংলাদেশ পেস বোলিং কোচ , ‘আমি সবসময় সাকিবের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। সাকিবের মুখে তার স্পিন বোলিংয়ের জগৎ নিয়ে শোনা সত্যিই দারুণ কিছু। এবির মতো (এবি ডি ভিলিয়ার্স) কেউ যখন বলবে, সাকিবকে খেলা কঠিন তখন সে আসলেই কঠিন। সে দারুণ এক বোলার। নিজের বলের গতি দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। আশা করছি কাল সে, পাঁচ উইকেট নিয়ে মাঠ ছাড়বে।’ 

ঢাকা টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটে ২৮২ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের চেয়ে পেছিয়ে আছে ৮৩ রানে। প্রথম ইনিংসে লঙ্কানদের তিন উইকেট নিয়েছেন সাকিব। অন্য দুই উইকেট নিয়েছেন এবাদত হোসেন। হেড কোচ ডোনাল্ডের মতে, এবাদত যে বোলিং করেছে ওর পাঁচ উইকেট পাওয়া উচিত ছিল।