ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে এক যুবককে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নিহত ব্যক্তির মা ও পরিবারের অভিযোগ, মুসলিম এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় ওই যুবককে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে একজন ওই তরুণীর ভাই শাহাবুদ্দিন (১৯) ও অপর জন নওয়াজ (১৯)।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা যায়, নিহত ওই যুবকের নাম বিজয় কাম্বলি (২৫)। তিনি ওয়াদি টাউনের ভীমানগরের বাসিন্দা।

বিজয়ের এক বন্ধু জানান, গত সোমবার রাতে রেলওয়ে সেতুর কাছে একদল লোক বিজয়ের ওপর চড়াও হন। তর্কের একপর্যায়ে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়ে ঘটনাস্থলেই বিজয় মারা যান।

তিনি বলেন, আমরা বসে কথা বলছিলাম। হঠাৎ কোথাও থেকে এসে তারা হাজির হন। আমাদের সামনে দুজন দাঁড়ান। আমরা তাদের চিনি না। এসেই ওর (বিজয়) উপর হামলা চালান তারা। একজনের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে আঘাত করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান।

পুলিশ জানায়, মুসলিম এক তরুণীর সঙ্গে বিজয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তবে মেয়ের পরিবার শুরু থেকেই তাদের সম্পর্কের বিরোধিতা করে আসছিল।

এ ঘটনার পর কালাবুর্গি জেলার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় ইতোমধ্যেই থানায় মামলা দায়ের করেছেন নিহত বিজয় কাম্বলির মা। মামলার এজাহারে ওই তরুণীর বাবা ও ভাইয়ের বিরুদ্ধে ছেলেকে ছুরিকাঘাতের অভিযোগ করেছেন তিনি।