পিঠের হাড়ের ইনজুরির পর টেস্ট খেলার সামান্য সম্ভাবনা ছিল মিডল অর্ডার ব্যাটার ইয়াসির আলী রাব্বির। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ শুরুর আগেই লাল বলের ফরম্যাট থেকে ছিটকে পড়েন তিনি। 

এরপর জুলাইয়ের শুরুতে শুরু হওয়া টি-২০ ফরম্যাটে অনিশ্চিত ছিলেন রাব্বি। শেষ পর্যন্ত টি-২০ সঙ্গে ১০ জুলাই শুরু হওয়া ওয়ানডে সিরিজ থেকেও ছিটকে গেলেন ডানহাতি ব্যাটার। 

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডর ফিজিও বায়েজেদুল ইসলাম বলেছেন, ‘পিঠের ইনজুরি থেকে আমাদের প্রত্যাশা মতো সেরে ওঠেনি রাব্বি। আমরা ভেবেছিলাম, দুই সপ্তাহ বিশ্রামের পর প্রাথমিক অনুশীলন শুরু করতে পারবে সে। কিন্তু সেটা হয়নি। ধারণা করছি, তার সেরে উঠতে আরও সময় লাগবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের বাকি ম্যাচ সে খেলতে পারবে না।’ 

গত ১০ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় ইনজুরিতে পড়েন ইয়াসির রাব্বি। এখন তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হবে। বিসিবির মেডিকেল টিমের অধীনে সেরে ওঠার কার্যক্রম শুরু করবেন তিনি। 

বিসিবির নির্বাচকরা এখনও ওয়ানডে ও টি-২০ দলে রাব্বির বিকল্প ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করেনি। তবে টেস্টে তার বিকল্প হিসেবে নেওয়া হয়েছে এনামুল হক বিজয়কে। আট বছর পর আবার জাতীয় দলের সাদা পোষাক পড়তে পারেন তিনি।