গর্ভপাতের অধিকার দেওয়া প্রায় পাঁচ দশকের একটি পুরোনো আইন বাতিল করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। এ পরিস্থিতিতে দেশটির বেশ কিছু রাজ্যে গর্ভপাত করানোর ক্লিনিক বন্ধ হওয়া শুরু হয়েছে। এ আদেশের প্রতিক্রিয়ায় প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, এতে তিনি স্তম্ভিত। যুক্তরাষ্ট্রের জন্য আজ এক দুঃখের দিন। দেশ এক চরম ঝুঁকিপূর্ণ এবং বিপজ্জনক পথে পা রাখল। রিপাবলিকান পার্টি থেকে নির্বাচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ঈশ্বরই এমন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু শহরে গর্ভপাতের অধিকারের পক্ষে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। খবর এএফপি ও রয়টার্সের।
স্থানীয় সময় শুক্রবার রক্ষণশীল সংখ্যাগরিষ্ঠ সুপ্রিম কোর্ট ৬-৩ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে এ রায় দেন। প্রায় ৫০ বছরের পুরোনো রো বনাম ওয়েড মামলার রায় যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালতে উল্টে যাওয়ায় দেশটির প্রায় অর্ধেক রাজ্যই শিগগিরই গর্ভপাতের ওপর বিধিনিষেধ বা নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে বলে অনুমান করা হচ্ছে।
আরকানসোর লিটল রকে একটি গর্ভপাত ক্লিনিক সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অনলাইনে আসার পরপরই রোগীরা যেখানে থাকে, সেখানকার দরজাগুলো বন্ধ করে দেয়।
এদিকে হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের সামনে বাইডেন বলেন, আদালত বিশেষত সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নিয়েছেন, যেটি বহু আমেরিকানের কাছে খুবই মৌলিক একটি অধিকার। আদালতের রায় এতটাই নির্মম যে, নারী এবং মেয়েরা একজন ধর্ষকের সন্তানও জন্ম দিতে বাধ্য হবে।
অন্যদিকে এ আদেশের পর ফক্স নিউজকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্প বলেন, সংবিধান মেনেই এটা হচ্ছে। অধিকার ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে, যা আরও অনেক আগেই ফিরিয়ে দেওয়া উচিত ছিল।