শোক কাটিয়ে ওঠার রসদ দরকার ছিল ড্যানিয়েল কলিনড্রেসের। তিনি সেটা পেরেছেন। মা হারানোর শোক কাটিয়ে দেখিয়েছেন পায়ের জাদু। ব্রাজিলিয়ান ডোরেয়লটন গোমেজকে দিয়ে করিয়েছেন দুই গোল। সঙ্গে নূরুল নাঈম ফয়সালের শেষের ঝলকে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে ডার্বি ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও জিতেছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। 

কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার প্রিমিয়ার লিগে আবাহনী 'ডার্বি'-তে ঢাকা আবাহনী জয় পেয়েছে ৩-২ গোলে। দারুণ এই জয়ে শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকল মারিও লেমোসের দল। ১৭ ম্যাচে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকা আবাহনী ৬ পয়েন্ট পিছিয়ে বসুন্ধরা কিংসের থেকে। 

গত ২৩ জুন আবাহনীর মাঠে অনুশীলন শুরুর আগে মা হারানোর সংবাদ পান কোস্টারিকান ফুটবলার কলিনড্রেস। তবে মাকে শেষবার বিদায় জানাতে কোস্টারিকায় যাননি তিনি। এদিন মাঠে নামা এ ফরোয়ার্ড দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। 

ম্যাচের ৩২ মিনিটে অমিড পপালজি গোল করলে এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম। মিনিট দুয়েক পর সেই গোল শোধ করেন ডোরেয়লটন। ৪০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে পিটার থ্যাঙ্কগডের কল্যাণে ফের এগিয়ে যায় চট্টলা আবাহনী।

এরপর ৫৭ মিনিটে দ্বিতীয়বার হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন চট্টলার ক্যান্ডি অসাস্টিন। এ সুযোগটিই কাজে লাগান লেমোসের শিষ্যরা। ৭১ মিনিটে ডরিয়েলটন সমতা ফেরানোর মিনিট সাতেক পর ফয়সাল গোল করলে জয় নিশ্চিত হয় আবাহনীর। বাঁচিয়ে রাখে শিরোপা স্বপ্ন।