বায়ার্ন মিউনিখ কোচ হুলিয়ান নাগেলসম্যানের মতো অনেকের কাছেই উদ্ভট লাগতে পারে। আর্থিক কাঠামো ভেঙে পড়া বার্সেলোনা এতো ফুটবলার কিনছে কী করে? 

প্রায় ৭০ মিলিয়নের রাফিনহা, ৫০ মিলিয়নের রবার্ট লেভানডস্কিকে কেনার পর কাতালান ক্লাবটি আরও এক বড় সাইনিং সম্পন্ন করতে যাচ্ছে। সেভিয়া থেকে দলে ভেড়াচ্ছে ২৩ বছর বয়সী ফ্রান্স ডিফেন্ডার জুলেন কুন্দেকে। 

সংবাদ মাধ্যম গোল দাবি করেছে, দুই পক্ষের মধ্যে চুক্তির ব্যাপারে সমঝোতা হয়ে গেছে। বাকি কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। তাকে কিনতে বার্সার ৫০ মিলিয়ন ইউরো ক্যাশ দিতে হচ্ছে। এডঅন্স বাবদ দিতে হবে ১০ মিলিয়ন ইউরো। 

বার্সার সঙ্গে ২০২৬ সাল পর্যন্ত চুক্তি করছেন তিন মৌসুম সেভিয়ায় খেলা ডিফেন্ডার কুন্দে। এর আগে গত মৌসুমে ম্যানসিটি থেকে বার্সা সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়াকে এনেছে। চলতি মৌসুমে চেলসি থেকে ফ্রি এজেন্টে এনেছে ক্রিস্টেনসেনকে। 

কুন্দের চেলসিতে যাওয়ার বড় সম্ভাবনা ছিল। ব্লুজ কোচ টমাস টুখেল তাকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে খুবই আগ্রহী ছিলেন। কিন্তু ফ্রান্স তরুণ বার্সাকে বেছে নিচ্ছেন। রাফিনহার মতো চেলসির চেয়ে বার্সাকে বেশি পছন্দ তার। 

কুন্দে ক্যাম্প ন্যুতে আসায় কোচ জাভির সামনে বড় এক সিদ্ধান্ত অপেক্ষা করছে। মোটা অঙ্কের কুন্দেকে কি তিনি বেঞ্চে বসিয়ে রাখবেন? নাকি সেরা ছন্দে না থাকা সিনিয়র খেলোয়াড় জেরার্ড পিকেকে বাদ দেওয়ার সাহস দেখাবেন? কুন্দেকে অবশ্য রাইট ব্যাক হিসেবেও খেলানো হতে পারে।