তিন ফরম্যাটে বাংলাদেশ দলের স্বস্তির জায়গা ছিল বোলিং আক্রমণ। পেসাররা ভালো করছিলেন। কিন্তু জিম্বাবুয়েতে টি-২০ এবং ওয়ানডে সিরিজে ছন্নছাড়া বোলাররা। তারা ভুলের পর ভুল করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে দলের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। 

তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম দুটি হারের পর সংবাদ সম্মেলনে ডমিঙ্গো বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে ওরা ৬০ রানে তিন এবং দ্বিতীয় ম্যাচে ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছিল। তাদের ওই চাপের সুবিধা নিতে পারিনি আমরা। অনেক বাজে বল করেছি, ফিল্ডিং অনুযায়ী বল করতে পারিনি, অনেক মার খেয়েছি এবং ভুল পথ বেছে নিয়েছি।’ 

ডমিঙ্গো জানান, বোলাররা কন্ডিশন অনুযায়ী যেভাবে ভুল করেছেন অবশ্যই আমাদের শাস্তি প্রাপ্য ছিল। দুই ম্যাচে চারটি সেঞ্চুরি করে জিম্বাবুয়ে বাংলাদেশ দলকে ওই শাস্তিই দিয়েছে। দুই ম্যাচেই বাংলাদেশ অন্তত ২০ রান কম করেছে বলেও মন্তব্য করেন ডমিঙ্গো। তার ভাষ্যে, ‘দুই ম্যাচেই জিম্বাবুয়ের জয় পাওনা ছিল।’ 

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ হারলেও ওয়ানডে দলের তেমন দোষ দেখছেন না ডমিঙ্গো। জিম্বাবুয়ের কন্ডিশনে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করা সহজ বলে মনে করছেন তিনি। এছাড়া আগামী বছরের বিশ্বকাপের আগে এই পরাজয়কে শিক্ষার বড় সুযোগ বলেও মন্তব্য করেন প্রোটিয়া এই কোচ। 

তিনি বলেন, ‘গত এক-দেড় বছর যেভাবে ওয়ানডে দল পারফরম্যান্স করেছে তাদের সমালোচনা করা কঠিন। তারা এই সময়ে ভালো কিছু জয় উপহার দিয়েছে। সমস্যা হলো, ম্যাচ জিততে হলে আপনাকে সেঞ্চুরি করতে হবে। ইনিংসের শেষ টানতে হতে। বিশ্বকাপ এখনও এক বছর বাকি। ভাগ্য ভালো যে, এই ম্যাচগুলো সুপার লিগের অংশ নয়। হারটাকে আমরা অভিজ্ঞতা অর্জন হিসেবে দেখছি।’