প্রয়োজন ফুরিয়ে গেলে যা হয়! যে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ছিলেন এক সময় রিয়াল মাদ্রিদের প্রাণভোমরা। তিনি গোল না করলে লস ব্লাঙ্কোসরা জিতত না। তাঁর কাঁধেই ছিল আক্রমণভাগের ভার। সেই রোনালদোকে এখন ফেলনা মনে হয় রিয়ালের। 

সুপার কাপ জেতার পর রিয়ালের এক সমর্থক সামনে পেয়ে যান দলটির প্রেসিডেন্ট পেরেজকে। তাঁকে পেয়ে একটা আবদার করে বসেন তিনি। রোনালদোকে আবার ফিরিয়ে আনার জন্য। কিন্তু পেরেজের কথাবার্তা শুনে সিআর সেভেন সমর্থকদের গায়ে জ্বলুনি হওয়ার কথা। কিছুটা আকার ইঙ্গিতে তাঁর বয়সটা যে বেশি, সেটাই বোঝাতে চান পেরেজ। বলেন, 'কার কথা বলছেন? রোনালদো? আবার আনব? ৩৮ বছরের রোনালদোকে?'

পেরেজের এমন মন্তব্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়। এর পরই শুরু হয় তাঁর মুণ্ডুপাত। ক'দিন আগে এক গবেষণার ফলে দেখা যায়, প্রিমিয়ার লিগে সবচেয়ে বেশি কটু কথা শুনেছেন রোনালদো। তাই বলে তাঁর যে ফ্যান ফলোয়ার নেই, সেটা ভাবলে চলবে না। এরই মধ্যে একটা অংশ ধিক্কার জানিয়েছে পেরেজকে। ওই ভিডিওর নিচে কাতিয়া নামের একজন লিখেছেন, তাঁর বয়স ৪৮ বছর মানলাম; কিন্তু সে এখনও দুই মিটার উচ্চতায় লাফাতে পারে। শরীর পুরো ফিট, কোনো মেদ নেই। সম্মান দাও বুড়ো (পেরেজ)। ভুলো না তোমার বয়স ৭৫।'

২০০৯ থেকে ২০১৮ অবধি রিয়াল মাদ্রিদ মাতিয়েছেন রোনালদো। এই লম্বা সময়ে প্রায় সব শিরোপাই জিতেছেন তিনি। এখনও ক্লাবটির সর্বকালের সেরা গোলদাতা এই পর্তুগিজ তারকা। সব মিলিয়ে রিয়ালের হয়েই তাঁর গোলসংখ্যা ৪৫০টি।