গত বছরই একদিনের ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন কেভিন ও'ব্রায়েন। এবার সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ালেন আয়ারল্যান্ডের এই তারকা অলরাউন্ডার। এক বিবৃতিতে আইরিশ ক্রিকেট বোর্ড বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

দেশের জার্সি কেন তুলে রাখছেন, তার কারণটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী আইরিশ কিংবদন্তি। কোনও রাখঢাক না রেখেই তিনি জানান, তার ইচ্ছা ছিল এবছর অস্ট্রেলিয়ার টি২০ বিশ্বকাপ খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন। তবে গতবছর টি২০ বিশ্বকাপের পর থেকেই তিনি আর জাতীয় দলে সুযোগ পাননি। তাই তার মনে হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট ও নির্বাচকরা আর তার কথা ভাবছেন না। সেকারণেই অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

২০০৬ সালে জাতীয় দলের জার্সিতে অভিষেক হয় কেভিন ও'ব্রায়েনের। তার হাত ধরেই আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশ থেকে টেস্ট খেলুড়ে দেশে পরিণত হয় আয়ারল্যান্ড। আইরিশদের ওয়ানডে ইতিহাসের চতুর্থ ও টি-টোয়েন্টি দলের দ্বিতীয় অধিনায়ক তিনি। 

ওয়ানডেতে বল হাতে আইরিশদের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি তিনি। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে ৩২.৬৮ গড়ে ১১৪ উইকেট তার। ব্যাট হাতেও একাধিক রেকর্ড আছে ও'ব্রায়েনের। ওয়ানডে বিশ্বকাপে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড আছে তার ঝুলিতে। ২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ৫০ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি। ১১৩ রানের ইনিংস খেলার পথে তিনি ১৩টি চার ছয়টি ছক্কা হাঁকান। তার অসাধারণ ওই ইনিংসে ভর করেই ৩২৮ রানের লক্ষ্য পাড়ি দিয়ে জয় তুলে নেয় আইরিশরা।

আন্তর্জাতিক টি২০তে ক্রিকেটে কেভিন ১৯৭৩ রান সংগ্রহ করেছেন ও উইকেট নিয়েছেন ৫৮টি। ৩ টেস্ট খেলে ২৫৮ রান সংগ্রহ করেন। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোট ৪টি সেঞ্চুরি ও ২৪টি হাফ-সেঞ্চুরি আছে তার।