ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে এই ফরম্যাটের ভবিষ্যৎ নিয়ে বড় ধরনের একটি প্রশ্নচিহ্ন রেখে গেছেন ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী তারকা বেন স্টোকস। তাঁর শঙ্কা, যেভাবে বিশ্বজুড়ে টি২০ ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট হচ্ছে, তাতে ভবিষ্যতে এই ওয়ানডে খেলতে আগ্রহ হারাবেন ক্রিকেটাররা। তাঁর সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন ওয়াসিম আকরামের মতো সাবেকরা। তাঁর দাবি, ওয়ানডে ক্রিকেটকে মুছে ফেলা হোক।

মঈন আলি আর রবিচন্দ্রন অশ্বিনও ভবিষ্যতে ওয়ানডে ক্রিকেটের প্রয়োজনীয়তা থাকবে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তবে এঁদের এসব আলোচনাকে ভিত্তিহীন মনে করছেন ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তিনি মনে করেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটই টিকে থাকবে আপন মহিমায়। 'আমার যত নাম-যশ হয়েছে, তা ওয়ানডে ক্রিকেট দিয়েই। ওয়ানডে থাকবে না- এ ধরনের আলোচনার কোনো মানে হয় না। আমার মতে, ক্রিকেটই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, সংস্করণ যেটাই হোক না কেন।' ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এভাবেই ওয়ানডের পাশে দাঁড়িয়েছেন রোহিত।

এই ফরম্যাটে তিনটি দুই শতাধিক ইনিংস রয়েছে তাঁর। দশ হাজারের কাছাকাছি রান তাঁর এই ফরম্যাটে। এমনকি টি২০-তেও তিনি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী। ভারতের ওয়ানডে দলের নিয়মিত অধিনায়ক রোহিত মনে করেন, ওয়ানডেতেও দর্শক গ্যালারি পূর্ণ থাকে; ক্রিকেটারদের কাছেও এই ফরম্যাটের গুরুত্ব অনেকখানি। 'যখনই ওয়ানডে খেলি আমরা, তখন গ্যালারি পূর্ণই থাকে। ওয়ানডের রোমাঞ্চ উত্তেজনা ব্যাপক। তবে কে কোন সংস্করণে খেলবে, সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমার মতে, তিন সংস্করণের গুরুত্বই সমান রয়ে যাবে।' রোহিত শর্মা ওয়ানডে ঘিরে যতই আশাবাদী হোক না কেন, নতুন এফটিপিতে (ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম) ওয়ানডে সুপার লিগ বাতিল করা হয়েছে। বিশ্বকাপ খেলার জন্য এখনও সুপার লিগ চালু রয়েছে। তবে পরবর্তী বিশ্বকাপে খেলতে গেলে সুপার লিগ থাকছে না।

এ কারণেও অনেকে মনে করছেন, আইসিসির কাছেও গুরুত্ব হারিয়েছে ওয়ানডে ফরম্যাটের। যদিও সেটা বিশ্বাস করেন না রোহিত শর্মা। লোকে টেস্টের ভবিষ্যৎ নিয়েও চিন্তিত ছিল। কিন্তু বর্তমান বাস্তবতায় এটাও প্রমাণিত হয়েছে যে টি২০ এবং ওয়ানডের পাশাপাশি টেস্টের গুরুত্ব কোনোভাবেই কমেনি। সেটাই মনে করিয়ে দিয়েছেন রোহিত, 'আমি কখনোই বলব না যে ওয়ানডে বা টি২০ হারিয়ে যাচ্ছে; টেস্ট ক্রিকেট ফুরিয়ে যাচ্ছে। আমার মনে হয়, যদি আরও কোনো একটি সংস্করণ থাকত, তাহলে আমি সেটাও খেলতাম। কারণ, ক্রিকেট খেলতে পারাটাই আমার কাছে আনন্দের- সেটা যে কোনো ফরম্যাটেই হোক না কেন।'