সাকিব আল হাসান, রশিদ খান- ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটে দুই দেশের দুই ফেরিওয়ালা তারা। দু'জনেই খেলেছেন আইপিএলে। একই দলে দুই বছর খেলেছেন তারা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও অনেকবার সাকিবের মোকাবিলা করেছেন এই আফগান স্পিনার। তাই সাকিবকে একটু বেশিই জানেন আফগানিস্তানের রশিদ খান। এবার অধিনায়ক সাকিবের বাংলাদেশের মোকাবলা করবে আফগানিস্তান। রশিদ মনে করেন, সাকিবের নেতৃত্ব পার্থক্য গড়ে দিতে পারে।

শারজায় এশিয়া কাপ মিশনে টাইগারদের মুখোমুখি হবার আগে রশিদ খান জানান, 'সাকিব বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক, দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। এটি একটি বিশাল পার্থক্য তৈরি করবে। তবে আমরা আমাদের প্রক্রিয়া সম্পর্কে চিন্তা করি। এটি খেলোয়াড়দের মনের মধ্যে রয়েছে।'

এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে আফগানদের কাছে বিধ্বস্ত হয়ে এক বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন লঙ্কান অধিনায়ক শানাকা। বাংলাদেশ-আফগান দুই দলের বোলিং আক্রমণের তুলনা করে স্পষ্ট করে তিনি বলেন, সাকিব ও মুস্তাফিজুর রহমান ছাড়া বাংলাদেশের নেই বিশ্বমানের বোলার। সেদিক থেকে আফগানিস্তানের থেকে বাংলাদেশ সহজ প্রতিপক্ষ।'

শানাকার এমন মন্তব্যের বিষয়ে রশিদ খানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, 'আমরা প্রতিপক্ষ শক্তিশালী বা দুর্বল- এগুলো ভাবি না। ক্রিকেটে আপনারা এভাবে ভাবতে পারেন না। ম্যাচের ফল তো আমাদের হাতে নেই। সবাইকে গুরুত্ব দিতে হবে। আমার কাছে সবাই কঠিন প্রতিপক্ষ। কাল যদি হংকংয়ের বিপক্ষে খেলি, তাহলে যেমন প্রস্তুতি নেবো, ভারতের বিপক্ষে খেললেও একই প্রস্তুতি নেবো।'