পিঠ দেয়ালে ঠেকে যাওয়ায় ওপেনিং নিয়ে বাজি ধরতেই হলো। বাজিটা প্রথম ম্যাচেই ধরার কথা ছিল। এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাঁচা-মরার ম্যাচে বাজির ঘোড়া সাব্বিরের ব্যাট ক্লিক করেনি। তবে মেহেদি মিরাজের দেওয়া ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে ৭ উইকেটে ১৮৩ রানের সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ।    

দুবাই গ্রাউন্ডে টস গুরুত্বপূর্ণ। তবে সেটা পক্ষে আসেনি সাকিবের। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সাব্বির ৬ বলে এক চারে ৫ রান করে ফিরে যান। অন্য প্রান্তে ছোট্ট একটা ঝড় দেখান মেহেদি মিরাজ। তিনি ২৬ বলে দুই চার ও দুই ছক্কায় ৩৮ রানের ইনিংস খেলেন। সাহসী ব্যাটিং দেখান। 

মিরাজ ফিরে যান ৬.৫ ওভারে দলের ৫৮ রানে। এরপরই চারে নামা মুশফিক ব্যর্থ হয়ে সাজঘরে ফেরেন। তার ব্যাট থেকে মাত্র চার রান আসে। সাকিব হাত খুলে খেলতেই আউট হন। তিনি ২২ বলে তিন চারে করেন ২৪ রান। এরপর আফিফ হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ ৫৭ রানের জুটি গড়েন। 

ওই জুটি গড়ার পথে আফিফ ২২ বলে ৩৯ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন। চারটি চার ও দুটি ছক্কা হাঁকান তিনি। এছাড়া মাহমুদউল্লাহ করেন ২২ বলে এক চার ও এক ছক্কায় ২৭ রান। ফিনিশিং দেন মোসাদ্দেক ও তাসকিন আহমেদ। আফগানদের বিপক্ষে ভালো ব্যাটিং করা মোসাদ্দেক এই ম্যাচে ৯ বলে চারটি চারে ২৪ রান করেন। তাসকিন এক ছক্কায় করেন ১১ রান।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ভালো বোলিং করেছেন বাঁ-হাতি পেসার দিলশান মাদুসকা ও ডানহাতি রহস্য স্পিনার মহেষ থিকসানা। তারা ৪ ওভারে যথাক্রমে ২৬ ও ২৩ রান দিয়ে একটি করে উইকেট নিয়েছেন। আসিথা ফার্নান্দো ৪ ওভারে ৫১ রান দিয়ে নেন এক উইকেট। ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ও চামিকা করুনারত্নে নেন দুটি করে উইকেট। তবে চার ওভারে খরচ করেন যথাক্রমে ৪১ ও ৩২ রান।