জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডে হেরে একটু ধাক্কা খেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা দেওয়ার সুযোগ ছিল কিউইদের। কিন্তু অজি পেস অলরাউন্ডার ক্যামেরুন গ্রিন সেটা হতে দেননি। হারতে বসা দলকে দারুণ এক ইনিংস খেলে ২ উইকেটের জয় এনে দিয়েছেন তিনি। 

মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের কাজালিস স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ভালো সংগ্রহ পায়নি নিউজিল্যান্ড। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে তোলে ২৩২ রান।

ওপেনার ডেভন কনওয়ে ৪৬, তিনে নামা কেন উইলিয়ামসন ৪৫, চারে নামা টম ল্যাথাম খেলেন ৪৩ রানের ইনিংস। পাঁচে নামা ডার্লি মিশেল ২৬ রান করেন। পরের ব্যাটাররা চূড়ান্ত ব্যর্থ হন। তাদের ব্যর্থতায় ৪১.১ ওভারে ৪ উইকেটে ১৭৯ রান তোলা দলটি আড়াইশ’ রান করতে পারেন।  

তবে ছোট ওই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাত্র ৪৪ রানে ৫ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। অজিদের লক্ষ্য ততক্ষণে পাহাড়সম হয়ে গেছে। ম্যাচের সম্ভাব্য ফল অজিদের হার। ডেভিড ওয়ার্নার ২০ রান করলেও অন্য ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ (৫), তিনে নামা স্টিভ স্মিথ (১), চারে নামা মার্নাস লাবুশানে (০), পাঁচে নামা মার্কোস স্টইনিস (৫) ব্যর্থ হয়েছেন।

বিপদে ১৫৮ রানের জুটি গড়েন ছয়ে নামা অ্যালেক্স কেরি ও সাতে নামা ক্যামেরুন গ্রিন। উইকেটরক্ষক কেরি ৯৯ বলে আটটি চার ও এক ছক্কায় ৮৬ রান করে ফিরে যান। দলের রান তখন ৬ উইকেটে ২০২। পরের পথটা অজিদের জন্য ছিল সহজে পাড়ি দেওয়ার মতো। কিন্তু পরেই ম্যাক্সওয়েল (২), মিশেল স্টার্ক (১) ফিরলে বিপদে পড়ে অজিরা। 

বাকি পথটা পায়ের ইনজুরি নিয়ে খোঁড়াতে খোঁড়াতে পাড়ি দেন ক্যামেরুন গ্রিন। তিনি ৯২ বলে হার না মানা ৮৯ রানের ইনিংস খেলেন। দশটি চারের সঙ্গে একটি ছক্কা তোলেন এই পেস অলরাউন্ডার। তার সঙ্গে ১৩ বলে ১৩ রান করে জয়ের পথের সঙ্গী হন লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। ৩০ বল থাকতে জয় পায় স্বাগতিকরা। 

বল হাতে অজিদের টপ অর্ডার ধসিয়ে দেওয়ার কৃতিত্ব ট্রেন্ট বোল্টের। তিনি শুরুতেই নেন তিন উইকেট। স্পেল শেষ করেন ৪০ রানে ৪ উইকেট নিয়ে। এছাড়া ম্যাট হেনরি ও লকি ফার্গুসন নেন দুটি করে উইকেট। অজিদের হয়ে পেসার জস হ্যাজলউড নেন তিন উইকেট। স্পিনার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৫২ রান দিয়ে ৪ উইকেট তুলে নেন।