বিশ্বকাপের আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ক্যাম্প করার কথা ছিল লিটনদের। এর মধ্যে বদলে যাওয়া দলটা দেখে নেওয়ার সুযোগ হয়ে আসে আমিরাতের বিপক্ষে। দুই ম্যাচের প্রথমটিতে টপ অর্ডার হতাশ করেছে। তবে আফিফ হোসেনের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে ১৫৮ রানের সংগ্রহ পেয়েছে বাংলাদেশ। 

টি-২০ ফরম্যাটে আমিরাতে বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ খেলে জয় না পাওয়া বাংলাদেশ প্রথম টি-২০ ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নামে। শুরু ভালো পায়নি। মেক শিফট ওপেনার সাব্বির রহমান শূন্য করে ক্যাচ দেন। তিনে নেমে লিটন ৮ বলে তিন চারে ১৩ করে ফিরে যান। অন্য ওপেনার মেহেদি মিরাজ ১৪ বলে করেন ১২ রান। 

মাহমুদউল্লাহর জায়গায় টি-২০ একাদশে ঢোকার চাপ নিয়ে ইয়াসির রাব্বি ৪ রান করে আউট হন। বাংলাদেশ ৪৭ রানে হারায় ৪ উইকেট। এরপর দলীয় ৭৭ রানে ব্যর্থ হয়ে ফিরে যান মোসাদ্দেক হোসেন। তিনি যোগ করেন মাত্র ৩ রান।

দলের এই বিপর্যয়ে এক প্রান্তে দাঁড়িয়ে খেলে যান আফিফ হোসেন। তিনি ৫৫ বলে তিনটি ছক্কা ও সাতটি চারে ৭৭ রানের হার না মানা ইনিংস খেলেন। তার সঙ্গে জুটি গড়া নুরুল হাসান খেলেন ২৫ বলে দুই চার ও দুই ছক্কায় ৩৫ রানের ইনিংস। তারা দু’জন ৮১ রানের জুটি গড়েন। 

সংযুক্ত আরব আমিরাতের হয়ে সাবির আলী ও আয়ার আফজাল খান ৩ ওভার করে হাত ঘুরিয়ে ১৬ রান দিয়ে একটি করে উইকেট নেন। লেগ স্পিনার কার্তিক মায়িপান ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। অন্য স্পিনার জাওয়ার ফারিদ ৪ ওভারে দেন ৩৮ রান। তুলে নেন এক উইকেট।