টি-২০ দলের দায়িত্বে থাকা শ্রীধরন শ্রীরাম জানিয়েছেন, ত্রিদেশীয় সিরিজে দল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেননি। ক্রিকেটারদের জেনে-বুঝে নিয়েছেন। টপে নাজমুল শান্ত ও সৌম্য সরকার কী ইমপ্যাক্ট রাখেন। সাব্বির রহমানের ইনটেন্ট কী। মেহেদি মিরাজ কেমন করেন। লিটন দাস ওপেনিংয়ে সেরা নাকি তিনে এসব বোঝার চেষ্টা করেছেন।

আবার পেসার সাইফউদ্দিন কতটা প্রস্তুত। তিনি নতুন বলে ভালো নাকি স্লগে। শরিফুল ইসলাম উচ্চতা কাজে লাগিয়ে পেস-বাউন্সি উইকেটের সুবিধা নিতে পারেন কিনা এসব দেখেছেন তিনি। কোচের ওই দেখায় ব্যাটার সাব্বির ও পেসার সাইফউদ্দিন ফেল করেছেন। আবার বিশ্বকাপ দলে না থাকা শরিফুল ভালো করেছেন।

টি-২০ বিশ্বকাপের ঘোষিত দল পরিবর্তনের সুযোগ রেখেছে আইসিসি।  শরিফুল-সৌম্যর তাই খুলতে পারে ভাগ্য। টেকটিক্যাল ডিরেক্টর শ্রীধরন জানিয়েছেন, দল পরিবর্তনের সুযোগটা তারা নেবেন। দলটা তার মাথায় সেটও করা আছে। দু’দিন পরেই যা জানিয়ে দেওয়া হবে।

শ্রীরাম বলেন, ‘সিরিজটি ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতিতে কে কেমন করে সেটা দেখে নেওয়ার সুযোগ ছিল। বিশ্বকাপে কোন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে সমন্বয় কেমন হবে তা আমরা জানি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দল এক রকম আবার ভারত -ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ভিন্ন হতে পারে। প্রতিপক্ষ ও কন্ডিশন বিবেচনায় অতিরিক্ত স্পিনার খেলাব নাকি পেসার এই অপশনগুলো পরিষ্কার করে নিলাম।’

অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-২০ বিশ্বকাপের দলে পেসার শরিফুল ইসলাম রিজার্ভ হিসেবে ছিলেন। তার মূল দলে ঢোকা একপ্রকার নিশ্চিত। একইভাবে সাব্বির রহমানবে বাদ দিয়ে সৌম্যকে অর্ন্তভূক্ত করার সম্ভাবনা জোরালো। শ্রীরাম বলেন, ‘কোন দল বিশ্বকাপে যাবে তা আমরা এখন নিশ্চিত। চূড়ান্ত দল দেওয়ার সময় আছে। দু’দিন দেখি, তারপরে সিদ্ধান্ত জানাবো।’