ওসাসুনা ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি। সাইডবেঞ্চে বসে রেফারির সঙ্গে তর্ক করার জন্য লাল কার্ড দেখতে হয় জেরার্ড পিকেকে। এটাই ছিল বার্সা ডিফেন্ডারের পেশাদার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ। কাতালানদের হয়ে এটি ছিল তার ১১তম লাল কার্ড এবং লা লিগায় অষ্টম। একই ম্যাচে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে রবার্ট লেভানডোভস্কিকেও। রেফারি জেসুস গিল মানজানোর নানা সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বার্সা কোচ জাভি হার্নান্দেজও দেখেছেন হলুদ কার্ড। এমন ঘটনাবহুল ম্যাচেও ২-১ গোলে ম্যাচটি জিতেছে বার্সা।

ম্যাচের ছয় মিনিটে অতিথিদের জালে বল পাঠিয়ে উল্লাসে মেতে ওঠে এই মৌসুমে দুর্দান্ত খেলতে থাকা ওসাসুনা। স্বাগতিকদের লিড এনে দেন গার্সিয়া। ৩১ মিনিটে লাল কার্ড দেখেন লেভান্ডোভস্কি। ধাক্কা সামলে উঠতে না উঠতে গুরুত্বপূর্ণ দলের সেরা খেলোয়াড়কে হারানোর বিপর্যয়। সবমিলিয়ে টালামাটাল হয়ে পড়ে বার্সা।

বিরতির পর অন্য এক বার্সাকে দেখা গেল। মাঠে একজন কম নিয়েই ওসাসুনার বিপক্ষে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই শুরু করে বার্সেলোনা। এর ফলও পেয়েছে তারা। ৪৮ মিনিটে গঞ্জালেস পেদ্রির গোলে সমতায় ফেরে লা লিগার প্রাক্তন চ্যাম্পিয়নরা। ৮৫ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান তারকা রাফিনহার জয়সূচক গোল।

এই মৌসুমের এখন পর্যন্ত সেরা পারফরম্যান্সটাই উপহার দিলো জাভির দল। লিগের চলতি মৌসুমে এটা ১৪ ম্যাচে দ্বাদশ জয় বার্সার। তাদের পয়েন্ট এখন ৩৭। এক ম্যাচ কম খেলে পাঁচ পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে থাকল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা।