স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পরিবর্তে আগামী ১০ ডিসেম্বর বিএনপি নয়াপল্টনে সমাবেশ করলে ঢাকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও যানজট বিবেচনায় যা যা করণীয়, পুলিশ কমিশনার তা-ই করবেন। 

তিনি বলেন, ছাত্রলীগের অনুষ্ঠান এগিয়ে এনে ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশের জন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যান খালি করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সার্বিক বিবেচনায় পুলিশ কমিশনার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দিয়েছেন। 

আজ শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জের নবনির্মিত শায়েস্তাগঞ্জ থানার উদ্বোধন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। 

শায়েস্তাগঞ্জ থানা প্রাঙ্গণে বৃক্ষরোপণ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ছবি- সমকাল। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নাকি লক্ষ লক্ষ লোক নিয়ে আসবে। ঢাকাকে অচল করে দেবে। সরকার পতনের দাবি তুলবে। সেজন্যই তারা (বিএনপি নেতাকর্মীরা) চাল-ডাল নিয়ে ওখানেই (দলীয় কার্যালয়ে) বসবাস করবেন। ওখানেই থাকবেন। 

বিএনপির মুখপাত্র বলেছেন দলীয় কার্যালয়ে থেকেই বিএনপি সরকার পতনের ডাক দেবে- এমন দাবি করে আসাদুজ্জামান খান বলেন, বিএনপি বন্দুকের নলের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসছেন। সেজন্যই তারা নানা ধরনের ফন্দিফিকির, নানা ধরনের ষড়যন্ত্রের চিন্তা করেন। যেটা আওয়ামী লীগ কখনোই চিন্তা করে না। আওয়ামী লীগ সবসময়ই জনগণের মেন্ডেট নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে। চাল-ডাল রাখার ইঙ্গিতও সেকমরই। আমরা এটা ভালো করে দেখছি।

নবনির্মিত শায়েস্তাগঞ্জ থানার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিমান প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী, স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ খান, সিলেটের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহমেদ, জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান, পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি প্রমুখ।

প্রায় দেড় একর জমিতে সোয়া ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে থানা ভবন নির্মাণ করেছে গণপূর্ত বিভাগ।