ফ্রান্সের একের পর এক আক্রমণ ও গোল না হওয়ার হতাশার ফাঁকে দু’বার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল পোল্যান্ড। প্রথমার্ধে ওই সুযোগ নিতে পারেনি পোলিশরা। বরং গোলে পঞ্চমবার শট নিয়ে ব্রেক থ্রু দেন অলিভার জিরু। শেষ বাশির আগে পেনাল্টিতে গোল করা ছাড়া তেমন সুযোগই তৈরি করতে পারেনি লেভার দল। বরং এমবাপ্পের দারুণ দুই গোলে পোল্যান্ডকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে কাতার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কেটেছে লেস ব্লুজরা।

ভালো দুটি আক্রমণ থেকে গোল না পাওয়ার পর গোল খেতে বসেছিল ফ্রান্স। ৩৮ মিনিটে পোল্যান্ডের নেওয়া ওই শট ডিফেন্ডার উপামেকানো, গোলরক্ষক লরিস হয়ে ভারানের দৃঢ়তায় গোললাইন থেকে বিপদমুক্ত হয়। তার একটু পরেই লিড নেয় ফ্রান্স। রাশিয়া বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন দলটির হয়ে গোল করেন স্ট্রাইকার অলিভার জিরু। তার ৪৪ মিনিটের গোলের কারিগর কিলিয়ান এমবাপ্পে। 

ওই গোল করে লেস ব্লুজদের নাম্বার নাইন ফ্রান্সের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড গড়েছেন। প্রতিপক্ষের জালে ৫২ গোল করে ভেঙেছেন বিশ্ব জয়ী থিয়েরি অঁরির জাতীয় দলের জার্সিতে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড। দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণ তুলতে থাকে ফ্রান্স। জিরুর ওভারহেড কিক থেকে গোল বাতিল হয়ে যায় বিল্ডআপে পোলিশ গোলরক্ষক সেনজি ফাউল হওয়ায়।

একটু পরেই গোল করেন ফ্রান্সম্যান কিলিয়ান এমবাপ্পে। তিনি ৭৪ মিনিটে বক্সের মুখ থেকে পেনাল্টির মতো করে লক্ষ্য নির্ধারণ করে জোরালো শট নিয়ে দলকে দ্বিতীয় লিড এনে দেন। তাকে দিয়ে গোল করান উসমান ডেম্বেলে। ওই গোলে লেস ব্লুজদের নাম্বার টেন ভেঙেছেন ফ্রান্স কিংবদন্তি জিনেদিন জিদানের জাতীয় দলের হয়ে ৩১ গোলের রেকর্ড।  

এরপর যোগ করা সময়ের শুরুতে পিএসজি’তে খেলা এমবাপ্পে দলকে ৩-০ গোলে এগিয়ে নেন। চলতি আসরে পঞ্চম গোল জালে পাঠিয়ে উদযাপন করেন। গোল্ডেন বুট জয়ের বড় দাবিদার বনে যান। সঙ্গে ২৪ বছরেই ফ্রান্সম্যান বিশ্বকাপে নবম গোলের কীর্তি গড়েন। ওই গোলের পরে লেভা শেষ বাঁশির আগে পেনাল্টি থেকে গোল করে হারের ব্যবধান কমান। ম্যাচে রেকর্ড গড়েছেন ফ্রান্স অধিনায়ক হুগো লরিসও। দেশের জার্সিতে কিংবদন্তি ডিফেন্ডার লিলিয়ান থুরামের সমান সর্বোচ্চ ১৪২ ম্যাচ খেলার কীর্তি গড়েছেন তিনি।