রংপুরে ইয়াবাসহ পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মনিরুজ্জামানকে আটক করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল। এ সময় তার কাছে থাকা তিন হাজার ১৯৮ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার সকালে স্টেশন রোডের নুরপুরের একটি ছয়তলা বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। মাদক ও চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে মনিরুজ্জামান আগে থেকেই সাময়িক বরখাস্ত হয়ে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইনে ক্লোজ ছিলেন।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত বিন কুতুব বলেন, অভিযানকালে এএসআই মনিরুজ্জামানের ঘর থেকে তিন হাজার ১৯৮ পিস ইয়াবা, ৭ হাজার ৮শ টাকা, ৯শ টাকা মূল্যের প্রাইজবন্ড, এক বোতল ফেনসিডিল, বিভিন্ন ব্যাংকের ৫টি চেক বই, ৪টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

রংপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মাহবুব রহমান জানান, মাদক সেবন ও চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে এএসআই মনিরুজ্জামানকে সাময়িক বরখাস্ত করে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়। তিনি পরিবার নিয়ে রংপুর নগরীর নুরপুর এলাকার মিলন ভিলার তৃতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন। সেখান থেকে গোপনে মাদকের কারবার চালিয়ে আসছিলেন তিনি।