তালিকাভুক্ত বিএসআরএম লিমিটেডের সঙ্গে একই গ্রুপের অতালিকাভুক্ত বিএসআরএম স্টিল মিলস কোম্পানি একীভূত হচ্ছে। হাইকোর্টের অনুমোদনের পর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন বা বিএসইসিও  সোমবার এই একীভূতকরণ প্রক্রিয়া অনুমোদন করেছে। সোমবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে বিএসইসি।

একীভূতকরণ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে বিএসআরএম স্টিল মিলস কোম্পানির শেয়ারহোল্ডাররা প্রতি ১০০০ শেয়ারের বিপরীতে বিএসআরএম লিমিটেডের ২৮৮টি শেয়ার পাবেন।

বর্তমানে বিএসআরএম স্টিল মিলস কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ৩৯৪ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে এ কোম্পানির মোট শেয়ার ৩৯ কোটি ৪৪ লাখ ৩৫ হাজার ৪০০টি। এর ৪৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ মালিকানা রয়েছে বিএসআরএম লিমিটেডের কাছে। বাকি ৫৫ দশমিক ০৩ শতাংশের মালিক বিএসআরএম গ্রুপের উদ্যোক্তা ও পরিচালক এবং তাদের নিটকটাত্মীয়দের কাছে।

বিএসইসির সূত্র জানিয়েছে, বিএসআরএম স্টিল মিলস কোম্পানির ৫৫ দশমিক ০৩ শতাংশ শেয়ারহোল্ডারদের অনুকূলে তালিকাভুক্ত বিএসআরএম লিমিটেডের ছয় কোটি ২৫ লাখ ১৬ হাজার ৩৯০টি শেয়ার ইস্যু করা হবে। এতে বিএসআরএম লিমিটেডের পরিশোধিত মূলধন ২৩৬ কোটি টাকা থেকে বেড়ে ২৯৮ কোটি ৫৮ লাখ টাকায় উন্নীত হবে।

একীভূতকরণ বিষয়ে বিএসআরএম লিমিটেডের কোম্পানি সচিব শেখর রঞ্জন কর সমকালকে জানান, বিএসআরএম স্টিল মিলস কোম্পানিটি বিএসআরএম লিমিটেডের সহযোগি কোম্পানি। এ কোম্পানিটি থেকে রড উৎপাদনের কাঁচামাল কিনে থাকে বিএসআরএম লিমিটেড।

তিনি বলেন, একীভূত হওয়ার ফলে বিএসআরএম লিমিটেডের মুনাফা বাড়বে। কারণ ইতিপূর্বে বিএসআরএম স্টিল মিলস মুনাফাসহ কাঁচামাল বিক্রি করতো, সে কাঁচামাল এখন নিজেরই হবে। ফলে এখানে খরচ কমবে। তাছাড়া দুইটি পৃথক কোম্পানি থেকে একটি কোম্পানি হওয়ায় ব্যবস্থাপনা খরচ কমবে। এ কারণেও ব্যয় সাশ্রয় হবে। তাতে তালিকাভুক্ত বিএসআরএম লিমিটেডের বিদ্যমান শেয়ারহোল্ডাররাই বেশি লাভবান হবেন।

সোমবার ঢাকা স্টক এপচেঞ্জে (ডিএসই) বিএসআরএম লিমিটেডের শেয়ার সর্বশেষ ৭৯ টাকা ৮০ পয়সা দরে কেনাবেচা হয়েছে, যা গতকালের তুলনায় ৫০ পয়সা বেশি।


মন্তব্য করুন