গত বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের কোনো লভ্যাংশ দেবে না জীবন বীমা খাতের কোম্পানি প্রাইম লাইফ ইন্স্যুরেন্স। সোমবার বিকালে অনুষ্ঠিত পর্ষদ সভায় ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ সালের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ। 

কোম্পানি সচিব এম. নুরুল আলম সমকালকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

২০১৯ সালের জন্য কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছিল।

গত বছরের জন্য লভ্যাংশ দিতে না পারার কারণ হিসেবে নুরুল আলম জানান, ডিসেম্বর শেষে জীবন বীমা ফান্ড কমে গিয়েছিল। এর বড় কারণ ছিল শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ।

তিনি বলেন, পিএফআই সিকিউরিটেজে ১৬৭ কোটি ৮০ লাখ টাকার স্বল্প মেয়াদি বিনিয়োগ করেছিল বীমা কোম্পানিটি। মুনাফাসহ যা গত বছর শেষে আদায়যোগ্য অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২০৫ কোটি টাকা। এ অর্থের পুরোটাই অনাদায়ি হয়ে আছে। এ কারণে লাইফ ফান্ডের পরিমাণ কমেছে। লাইফ ফান্ড কমে গেলে কোম্পানি লভ্যাংশ দিতে পারে না।

কোম্পানি সচিব আরো জানান, এছাড়া স্টার্লি গ্রুপে ১৫ কোটি টাকা, বাংলালায়ন জিরো কূপন বন্ডে প্রায় ৫ কোটি টাকা দীর্ঘ বছর অনাদায়ি পড়ে আছে।

২০১৯ সালের নিরীক্ষা প্রতিবেদনে এসব বিনিয়োগের অর্থ ফেরত পাওয়া নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিল কোম্পানিটির নিরীক্ষক প্রতিষ্ঠান।