চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অর্থাৎ গত জানুয়ারি থেকে জুন সময়কালে লাফার্জ-হোলসিম সিমেন্টের নিট মুনাফা আগের বছরের তুলনায় বেড়ে প্রায় সাড়ে তিন গুণে উন্নীত হয়েছে। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) আগের বছরের একই সময়ের ২৮ পয়সা থেকে বেড়ে হয়েছে ৯৬ পয়সা।

চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে সিমেন্টখাতের তালিকাভুক্ত বহুজাতিক এ কোম্পানিটির কর পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১১১ কোটি ৭০ লাখ টাকা, যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ৩২ কোটি ১০ লাখ টাকা।

দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পরিচালনা পর্ষদে পর্যালোচনা ও অনুমোদন শেষে এ তথ্য জানিয়েছে লাফার্জ-হোলসিম। বুধবার চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়কালের আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদনে কোম্পানিটির পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা শেষে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বছরের প্রথম ছয় মাসে লাফার্জ-হোলসিম বিক্রি থেকে আয় করেছে ৪৭৩ কোটি ৭০ লাখ টাকা। যা গত বছরের একই সময়ে ছিল ২৬৪ কোটি ১০ লাখ টাকা। অর্থাৎ এ বছরের প্রথম ছয় মাসে পণ্য বিক্রিতে ৭৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

মুনাফা বৃদ্ধির কারণে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয়ও (ইপিএস) বেড়েছে। জুন ২০২১ সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ কোম্পানির ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৯৬ পয়সা, যা গত বছর একই সময়ে ছিল ২৮ পয়সা। ইপিএসে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৪৮ শতাংশ।

বিক্রিতে প্রবৃদ্ধির তুলনায় মুনাফায় উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধির কারণ ব্যয় সংকোচন বলেও জানিয়েছে লাফার্জ-হোলসিম।

কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাজেশ সুরানা বলেন, উদ্ভাবন ও টেকসই হওয়ার যাত্রা লাফার্জ-হোলসিম ধরে রেখেছে। 'হোলসিম ওয়াটার প্রটেক্ট', টেকসই বর্জ্য ব্যবস্থাপনা 'জিওসাইকেল' এবং নতুন অ্যাগ্রিগেটস ব্যবসা আশানুরূপ গতি বজায় রেখেছে। কর্মীদের অদম্য ইচ্ছাশক্তি ও চেতনা এই ফলাফল বিক্রি ও মুনাফায় প্রবৃদ্ধি অর্জনে মূল ভূমিকা রেখেছে।