কুড়িল ফ্লাইওভার লেককে নতুন বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, ফ্লাইওভারের নিচে থাকা জলাশয়কে নিয়ে হাতিরঝিলের মতো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে।

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে বুধবার কুড়িল ফ্লাইওভার লেকে মাছের পোনা অবমুক্তকরণের মাধ্যমে ডিএনসিসি এলাকায় মৎস্য অবমুক্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, সব অন্যায় ও অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সবাই মিলে প্রকৃতিকে রক্ষা করতে হবে। আমরা মাছে ভাতে বাঙালি। আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় প্রায় ৬০ শতাংশ প্রাণিজ আমিষের জোগান দেয় মাছ।

তিনি কুড়িল ফ্লাইওভার লেকের চমৎকার পরিবেশের জন্য স্থানীয় কাউন্সিলরসহ এলাকাবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং লেকটিকে ঘিরে দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে নির্মাণে ডিএনসিসি থেকে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, গুলশান, বনানী ও বারিধারার মতো অভিজাত এলাকার বিলাসবহুল ভবনগুলোর পয়োবর্জ্য পাইপলাইনের মাধ্যমে জলাশয়ে উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে, যা পরিবেশের জন্য খুবই ক্ষতিকর। আগামী শীতকালে এসব পাইপলাইন কলাগাছ দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হবে। আর নগরীর জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধানকল্পে কল্যাণপুরে সুপরিকল্পিত জলাধারের জন্য অধিগ্রহণকৃত ১৭৩ একর জমির মধ্যে ১৭০ একরই অবৈধ দখলে রয়েছে, যা খুবই দুঃখজনক।