টানা পতনের পর আজ মঙ্গলবার উড়ন্ত সূচনা হয়েছে শেয়ারবাজারে। লেনদেনে আসা সিংহভাগ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে। তার সঙ্গে বেড়েছে সূচক ও লেনদেন।

সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে লেনদেনে আসা ৩৮২ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে ৩৩০টিই দর বেড়ে কেনাবেচা হচ্ছিল। বিপরীতে দর হারিয়ে কেনাবেচা হচ্ছিল মাত্র ৩৪টি এবং অপরিবর্তিত অবস্থায় ছিল ১৮টি শেয়ার। যা এর আগের দশ কার্যদিবসের প্রায় বিপরীত।

সিংহভাগ শেয়ারের দরবৃদ্ধি পাওয়ায় ডিএসইএক্স মূল্য সূচক ৯৯ পয়েন্ট বেড়ে এ সময় ৬১৮২ পয়েন্টে অবস্থান করছিল। সূচক বৃদ্ধির হার ১ দশমিক ৬৩ শতাংশ। অবশ্য বেলায় ১১টা ১৯ মিনিটে সূচকটি ১০৩ পয়েন্ট পর্যন্ত বেড়ে ৬১৮৫ পয়েন্টে উঠেছিল।

প্রথম দেড় ঘণ্টায় এ বাজারে ৩৭৪ কোটি টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়। গতকাল একই সময়ে কেনাবেচা হয়েছিল ১৪৭ কোটি টাকার শেয়ার।

দিনের লেনদেন পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, সকাল ১০টায় লেনদেনের প্রথম সেকেন্ডেই ডিএসইএক্স সূচকটি প্রায় ২১ পয়েন্ট বেড়ে ৬১০৩ পয়েন্ট ছাড়ায়। লেনদেনের প্রথম ১০ মিনিট পর ৬৭ পয়েন্ট বেড়ে ৬১৫০ পয়েন্ট এবং লেনদেনের প্রথম ঘণ্টা শেষে বেলা ১১টায় প্রায় ৭৮ পয়েন্ট বেড়ে ৬১৬০ পয়েন্ট ছাড়িয়েছিল।

আজকের এ ঊর্ধ্বমুখী ধারা মূলত গতকাল সোমবারের লেনদেনের দ্বিতীয়ার্ধের ধারাবাহিকতা। গতকাল লেনদেন শুরুর ৫০ মিনিটে সিংহভাগ শেয়ারের দরপতনে সূচক ৬৭ পয়েন্ট হারিয়েছিল। কিন্তু পরে ওই সূচকটি সেখান থেকে ১১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৬১০০ পয়েন্ট ছুঁইছুঁই অবস্থানে পৌঁছেছিল। কিন্তু ক্লোজিং পয়েন্ট ছিল ৬০৮২। এর আগে টানা নয় দিনে ৩১৪ পয়েন্ট ছিল।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার পরও সূচককে আরো ঊর্ধ্বমুখী হতে দেখা গেছে।

তবে এ সময় পর্যন্ত ৩৭ কোম্পানির শেয়ার ৫ শতাংশের ওপর বেড়ে কেনাবেচা হচ্ছিল। সার্কিট ব্রেকারের সর্বোচ্চ দরে কেনাবেচা হচ্ছিল মাত্র একটি শেয়ার কাট্টলী টেক্সটাইল।

বিপরীতে ২০ কোম্পানির শেয়ার সার্কিট ব্রেকারের সর্বনিম্ন দরে কেনাবেচা হচ্ছিল। এর মধ্যে- অ্যাপোলো ইস্পাত, বিআইএফসি, ফারইস্ট ফাইন্যান্স, ফার্স্ট ফাইন্যন্স, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজ, ন্যাশনাল ব্যাংক, সাফকো স্পিনিং উল্লেখযোগ্য।