সুনামগঞ্জে বাবাকে হত্যার দায়ের ছেলের যাবজ্জীবন

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ৩১ জুলাই ২০১৯      

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রতীকী ছবি

সুনামগঞ্জের ছাতকে বাবাকে হত্যার দায়ে আবদুর রশিদ নামে এক ছেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন বুধবার এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আবদুর রশিদ ছাতক উপজেলার মঈনপুর গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালের ২৩ মে বিকেলে আবদুর রশিদ বাড়ির একটি মোরগ ধরে নিয়ে বাজারে বিক্রি করে দেন। বাজার থেকে বাড়িতে আসার পর শহিদ মিয়া ছেলের কাছে মোরগ বিক্রির কারণ জানতে চান। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আবদুর রশিদ তার বাবাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত হন শহিদ। পরে তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওইদিন রাতে তিনি মারা যান। ঘটনার পরদিন শহিদ মিয়ার স্ত্রী নুরুননেছা বাদী হয়ে ছেলে আবদুর রশিদের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এই মামলায় তদন্ত শেষে পুলিশ আবদুর রশিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে বুধবার রায় ঘোষণা করেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় আসামি আবদুর রশিদ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলায় বাদী পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আবু তাহের মোহাম্মদ রুহুল আমিন তুহিন। আসামী পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. কামাল হোসেন।