আহত শিশুকে হাসপাতালে না নিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা

প্রকাশ: ০১ আগস্ট ২০১৯     আপডেট: ০১ আগস্ট ২০১৯      

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

নিহত পলাশ

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় পলাশ শব্দকর (৮) নামে এক শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কালিটি চা বাগান থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত পলাশ কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের বালিছিড়ি গ্রামের পরিমল শব্দকরের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শংকরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র পলাশ শব্দকর (৮) বুধবার সকাল ১১টার দিকে নিখোঁজ হয়। খোঁজাখুজির পর তাকে না পেয়ে তার বাবা কুলাউড়া থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর পুলিশ একই গ্রামের মিরজান আলীর ছেলে জাহেদ আলীকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে স্থানীয় কালিটি চা বাগানের জঙ্গলে রাখা পলাশের লাশ দেখিয়ে দেয়। পরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে পাঠায়। তার দেওয়া তথ্য মতে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মিরজান আলী ও রাহেল নামে দুই যুবককে আটক করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে আটক জাহেদ জানায়, গ্রামের নিকটবর্তী কালিটি চা বাগানের একটি গাছে থাকা পাখির বাসা থেকে বাচ্চা এনে দেওয়ার জন্য শিশু পলাশকে গাছে উঠিয়ে দেন জাহেদ ও রাহেল নামে আরও এক যুবক। তখন পা ফঁসকে গাছ থেকে পড়ে যায় সে। এ সময় তার পা ভেঙে যায়। এ সময় তারা পলাশকে বাঁচানোর চেষ্টা না করে চা বাগানের গভীর জঙ্গলে নিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ফেলে আসে। 

কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে হত্যামামলা দায়ের করা হয়েছে।