সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজের (এমসি কলেজ) ছাত্রী নিবাস থেকে স্মৃতি রানী দাস (২০) নামে এক শিক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সকালে ছাত্রাবাসের ৪র্থ তলার একটি খালি কক্ষ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মারা যাওয়া স্মৃতি রানী দাস (২০) কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামের যুগল কিশোর দাসের মেয়ে। তিনি এমসি কলেজের ইংরেজি বিভাগে অনার্স প্রথম বর্ষের (পুরাতন) ছাত্রী ছিলেন।  তিনি কলেজের ছাত্রী নিবাসের ৩য় তলার একটি কক্ষে থাকতেন।

প্রাথমিকভাবে বিষয়টিকে আত্মহত্যা বলে ধারনা প্রকাশ করে মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার বিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের জানান, মঙ্গলবার রাত ২ থেকে বুধবার ভোর ৬টার মধ্যে কোনো এক সময় অনাকাঙ্খিত ঘটনাটি ঘটে। স্মৃতি রানী দাস ত৪র্থ তলার খালি কক্ষের ফ্যানের সঙ্গে কাপড় শুকানোর লাইলনের রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। এর নেপথ্য কারণ অনুসন্ধানের চেষ্টা চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানা ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। শাহপরাণ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য জানান, ওই ছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসার পর পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এমসি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. তৌফিক এজদানী চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার রাতের কোন এক সময় স্মৃতি রানী দাস আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সকালে ছাত্রী নিবাসের অন্যান্য শিক্ষার্থীরা তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখে তাদেরকে খবর দেয়। এরপর পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।