বেশ কিছুদিন ধরে ভারতের সংবাদমাধ্যমে শ্রাবন্তীর সঙ্গে তার তৃতীয় স্বামী রোশান সিংয়ের সম্পর্ক নিয়ে অনেক খবর বেরিয়েছে। তারা নাকি আর একসঙ্গে নেই! এছাড়াও অনেকদিন হলো, দু'জনেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে একে অপরের ছবি সরিয়ে ফেলেছেন। 

এতদিন নিজেদের সম্পর্ক কিংবা বিচ্ছেদ নিয়ে এতদিন প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি কেউ। অবশেষে নিজেদের সংসার নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কথা বলেছেন রোশান সিং। 

আনন্দবাজার ডিজিটালকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শ্রাবন্তীকে নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি রোশান সিং নিজের নতুন ব্যবসা নিয়েও কথা বললেন।

সাক্ষাৎকারে একজন অভিনেত্রীর সঙ্গে সংসার করা কতটা চ্যালেঞ্জিং? -এমন প্রশ্নের জবাবে রোশান বলেন, আর পাঁচটা সংসারের মতোই আমাদের সংসার ছিল। ও যে সুপারস্টার, সেটা বাড়িতে থাকলে কোনোদিন বুঝতে দেয়নি। এমনকি, আমার পরিবারের সঙ্গেও মিশে গিয়েছিল। ওর ছেলের সঙ্গেও বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছিল আমার। ৪০৭ (মালবাহী ম্যাটাডর) চালায় আমার এক বন্ধু। তার সঙ্গেও ও মিশতে পারত। 

তিনি বলেন, এখন আর শ্রাবন্তীর সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই। তবে যা হয় ভালোর জন্যই হয়।

এর আগে এক সাক্ষাৎকারে রোশান সিংকে নিয়ে শ্রাবন্তীকে প্রশ্ন করেছিলেন উপস্থাপক। প্রশ্ন শুনেই শ্রাবন্তী বলেছিলেন, ‌'আমি এই বিষয় নিয়ে কোনও কথা বলতে চাই না..'। এসময় উপস্থাপক আবারও তার কাছে একই বিষয়ে জানতে চাইলে রেগে গিয়েছিলেন শ্রাবন্তী। সে সময় 'আমি কিছু বলব না' বলেই ক্যামেরার সামনে থেকে চলে যান তিনি।

উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালে স্বপন সাহা পরিচালিত ‘মায়ার বাঁধন’ সিনেমার মাধ্যমে টলিউডে প্রবেশ করেন শ্রাবন্তী। ২০০৩ সালে পরিচালক রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করেন তিনি। ২০১৬ সালে শ্রাবন্তী ও রাজীবের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তারপর থেকে ছেলে অভিমন্যু মায়ের কাছেই থাকে। বিচ্ছেদের পর সেই বছরই মডেল কৃষাণ ব্রজকে বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। কিন্তু সে বিয়ে ছ’মাসের বেশি টেকেনি। এরপর গত বছরের ১৯ এপ্রিল চণ্ডীগড়ের একটি গুরুদুয়ারায় গিয়ে রোশানের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন শ্রাবন্তী।