ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বিশেষ বৈশিষ্ট্য : * সুদীর্ঘ আট বছর পরিশ্রমের উদ্ভাবন জেমিনি * চ্যাটজিপিটিকে চ্যালেঞ্জ করবে জেমিনি * শতাধিক ভাষায় দক্ষতা দেখাবে জেমিনি

গুগল জেমিনি আলট্রা

গুগল জেমিনি আলট্রা

গুগল জেমিনি আলট্রা

সাব্বিন হাসান

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ০৬:১০ | আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৬:৪৭

মূলত জেমিনি ‘অ্যাডভান্স প্রো’ মডেল দুই মাস পুরোপুরি বিনামূল্যে ব্যবহারের সুযোগ মিলবে। ওই সময়ে জেমিনি প্রোর অ্যাডভান্স অপারেটিং সিস্টেমে যা কিছু থাকবে, তার সুফল বিনামূল্যে উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহকরা।

ফি লাগবে

গুগল জেমিনি অ্যাডভান্স সংস্করণের জন্য সুনির্দিষ্ট সাবস্ক্রিপশন ফির কথা জানিয়েছে নির্মাতা সংস্থা। যার জন্য মাস পেরোলেই গুনতে হবে সেবা ব্যয়। শুধু তাই নয়; গুগল অ্যাপে আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য বিশেষ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) অ্যাসিস্ট্যান্ট উন্নয়ন করা হয়েছে। 

নির্মাতা গুগল সূত্রে জানা গেছে, প্রমোশনাল অফারের আওতায় দুই মাস জেমিনি অ্যাডভান্স বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে। সাবস্ক্রিপশনের নাম গুগল ওয়ান এআই প্রিমিয়াম প্ল্যান, যা গ্রাহকদের গুগল ওয়ান থেকে কিনতে হবে।

কী কী সুবিধা

যারা গুগল জেমিনি অ্যাডভান্স সাবস্ক্রিপশন নেবেন, তারা জেনারেটিভ এআই সুবিধা পাবেন। সঙ্গে পাবেন গুগল ওয়ানের টু-টেরাবাইট ক্লাউড সেবা। গুগল বলছে, জেমিনি বহুমাত্রিক নতুন ফিচার সমৃদ্ধ; যার নাম জেমিনি (১.০) অ্যাডভান্স আলট্রা। লজিক্যাল রিজনিং, কোডিং ছাড়াও বহু জটিল কাজ দ্রুত আর খুব সহজে করতে পারে জেমিনি। গ্রাহকদের প্রম্পট বা নির্দেশের ওপর ভর করে নির্ভুল সদুত্তর দিতে জেমিনির পারদর্শিতা প্রমাণিত। টুলটি গৃহশিক্ষকের ভূমিকাতেও সুদক্ষ। ১০৫টির বেশি দেশে ইংরেজি ভাষায় গুগল জেমিনি অ্যাডভান্স কাজ করবে। নির্মাতারা জানিয়েছে, গ্রাহকের সুবিধার্থে আরও বহু ভাষা যোগ করতে প্ল্যাটফর্মটি নিয়মিতই কাজ করে চলেছে। শুরু থেকেই চ্যাটজিপিটির সঙ্গে প্রতিযোগিতার আভাস দিয়েছে জেমিনি এআই। গুগলের দাবি, মানুষের থেকেও বুদ্ধিমান হবে জেমিনি। যার উন্নয়ন হবে ধাপে ধাপে পরীক্ষামূলকভাবে।

নতুনত্বে জেমিনি

মূলত তিনটি সুনির্দিষ্ট ধাপে কাজ করবে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স টুল– আলট্রা, প্রো আর ন্যানো। তিন মোডে ভিন্ন দক্ষতা পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে সার্চগুরু গুগল। এআইবিষয়ক বহুমাত্রিক কাজে আলট্রা মোডে লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল (এলএলএম) ব্যবহার করা হবে। প্রো মোডে তুলনামূলক ছোট ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল ব্যবহার করা হবে। ন্যানো মোডে থাকবে তুলনামূলক ছোট ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল। অন্যদিকে ন্যানো মোড কম্পিউটার ও স্মার্টফোনে সহজেই চালানো যাবে।

গুগল ক্লাউড এআই ভাইস প্রেসিডেন্ট জানালেন, নতুন ধরনের এআই মডেলকে সাধারণত প্রশিক্ষিত করা হয়। ঠিক তারপরই সে তার দক্ষতা উপস্থাপন করতে পারে। টুলকে প্রশিক্ষিত করতে গুগল তাদের বিশেষ টেনসর প্রসেসিং ইউনিট (টিপিইউ) ব্যবহার করবে। সঙ্গে থাকবে গ্রাফিকস প্রসেসিং ইউনিটও (জিপিইউ)। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, জিপিইউর জন্য এনভিডিয়ার বিখ্যাত এইচ১০০ চিপ নির্ধারণ করেছে গুগল, যা মূলত জেনারেটিভ এআই উদ্দেশ্যেই নির্মিত। ডেটা সেন্টার থেকে স্মার্টফোন– সবখানেই সহজেই নিজেকে মানিয়ে নেবে জেমিনি।

জেমিনির বৈশিষ্ট্য

উদ্ভাবকদের ভাষায়, জেমিনি একটি মাল্টিমডেল জেনারেটিভ এআই। অর্থাৎ ইনফোগ্রাফিক, ছবি, অডিও, ভিডিও, ডকুমেন্ট— সব বিষয়েই বোঝার ক্ষমতায় জেমিনি পরীক্ষিত; যা কিছু চ্যাটজিপিটি করতে পারে, তা করবে জেমিনিও। তফাৎ হবে শুধু দক্ষতার পরিমাপে। গবেষকদের বিশ্লেষণ বলছে, জেমিনির অডিও স্পিচ ট্রান্সলেশনের দক্ষতা ৪০ শতাংশের কিছুটা বেশি। চ্যাটজিপিটির ক্ষমতা সেখানে ২৯ শতাংশ। ইংরেজি ভিডিও ক্যাপশন আর ভিডিও প্রশ্নোত্তরে জেমিনির দক্ষতার দুটো পরিমাণ যথাক্রমে ৬২ ও ৫৪ শতাংশ। বিপরীতে চ্যাটজিপিটির দক্ষতা ৫৬ ও ৪৬ শতাংশ।

পিক্সেল ফোনে জেমিনি

সার্চ ইঞ্জিন গুগল সেবাপণ্য জেমিনি এআইর ন্যানো মোড গুগল পিক্সেল-৮ স্মার্টফোনে সহজেই ব্যবহারযোগ্য হবে। প্রতিদিনের বহু প্রয়োজনীয় কাজ অনায়াসে সহজবোধ্য করবে জেমিনি। 

সার্চ, ক্রোম কিংবা অন্যসব কাজের পরিধিতে নিরাশ করবে না জেমিনি। আবার প্রো মোড ব্যবহারের সুযোগ পাবেন ডেভেলপার আর বিশেষ (এন্টারপ্রাইজ) গ্রাহকেরা। সর্বশেষ ডিসেম্বর থেকে যার পরীক্ষামূলক রোল আউট করেছে গুগল এআই স্টুডিও আর গুগল ক্লাউড ভারটেক্স। অ্যান্ড্রয়েড গ্রাহকরা এআইর মাধ্যমে জেমিনি ন্যানো ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। তবে আলট্রা মডেল নিয়ে নির্মাতা এখনও সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি।

আরও পড়ুন

×