উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ তৈরিতে অর্থ দিতে হয় না

প্রকাশ: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   

অনলাইন ডেস্ক

বর্তমানে বিশ্বে জনপ্রিয় অনলাইন মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়া। সার্চ ইঞ্জিনে কোনো বিষয়ে অনুসন্ধান করলে উইকিপিডিয়ার নিবন্ধ র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থানে থাকে বলে অনেকে নিজের বা নিজের প্রতিষ্ঠানের জন্য উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ তৈরির সিদ্ধান্ত নেন। 

অন্যসব ওয়েবসাইটের তুলনায় উইকিপিডিয়া একেবারেই ভিন্নভাবে কাজ করে। এখানে নিবন্ধ লিখতে আর্থিক লেনদেনের কোনো বিষয় নেই।

উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ‘অর্থের বিনিময়ে উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ তৈরি’-এর বিজ্ঞাপন ‘উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ’-এর নজরে এসেছে। সেসব বিজ্ঞাপনের সাথে উইকিপিডিয়ার কোনো সম্পর্ক নাই। প্রতারণামূলক সেসব বিজ্ঞাপনের ফাঁদে না পড়ার পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। 

উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক নাহিদ সুলতান বলেন, উইকিপিডিয়া একটি মুক্ত বিশ্বকোষ। মুক্ত মানে একেবারেই মুক্ত। এখানে যে কেউ কিছু নীতিমালা অনুসরণ করে নিবন্ধ তৈরি করতে পারেন এবং ব্যবহারকারীরা স্বেচ্ছাশ্রমে এই নিবন্ধ তৈরি করেন। নিবন্ধ তৈরির জন্য অর্থ নেওয়া হয় না, প্রদানও করা হয় না। উইকিপিডিয়ায় কী কী বিষয়ে নিবন্ধ থাকতে পারে, সে-সম্পর্কে বিশেষ কিছু নীতিমালা রয়েছে, যা উইকিপিডিয়াতে ‘উল্লেখযোগ্যতার নীতিমালা’ ( https://en.wikipedia.org/wiki/Wikipedia:Notability ) নামে পরিচিত। এই নীতিমালায় উত্তীর্ণ হলে এবং সেটি প্রমাণে গ্রহণযোগ্য তথ্যসূত্র থাকলে কেবলমাত্র তখনই উইকিপিডিয়াতে উক্ত বিষয়টি নিয়ে নিবন্ধ থাকতে পারে। অন্যথায়, নীতিমালায় উত্তীর্ণ নয় এমন বিষয়ের নিবন্ধ তৈরি করা হলে তা পরবর্তীতে অপসারণ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, কোনো বিষয়ে উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ তৈরি করতে চাইলে প্রথমে উইকিপিডিয়ার উল্লেখযোগ্যতার নীতিমালা পড়তে হবে। নিবন্ধের বিষয়টি নীতিমালা অনুসারে উত্তীর্ণ হলে প্রয়োজনীয় তথ্যসূত্র দিয়ে উইকিপিডিয়ার যে কোনো স্বেচ্ছাসেবককে নিবন্ধটি তৈরির অনুরোধ করতে হবে কিংবা যে কেউ নিজেই নিবন্ধটি তৈরি করতে পারেন অথবা আমাদের সঙ্গে ই-মেইলে যোগাযোগ করতে পারেন। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের অফিসিয়াল পাতায় পরামর্শ চাইতে পারেন। অন্যের প্রলোভনে অর্থ দিয়ে প্রতারিত হবেন না। 

উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ তৈরির অনুরোধ, পরামর্শ অথবা যে কোনো অভিযোগের জন্য এই ঠিকানায় ([email protected]) যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।