বাংলাদেশের বাজার ছাড়ছে জাপানের টেলিকম কোম্পানি

প্রকাশ: ০২ এপ্রিল ২০২০   

বিশেষ প্রতিনিধি

জাপানের বিশ্বখ্যাত টেলিকম কোম্পানি এনটিটি ডোকোমো বাংলাদেশে তাদের বিনিয়োগ পুরোপুরি গুটিয়ে নিচ্ছে। রবিতে থাকা তাদের পুরো শেয়ার রবির সঙ্গে একীভূত ভারতীয় এয়ারটেলের কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে তারা। বর্তমানে এই শেয়ার বিক্রি প্রস্তাব চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে পাঠিয়েছে বিটিআরসি। 

এ ব্যাপারে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার সমকালকে বলেন, ‘কে কোথায় ব্যবসা করবে, কে কোন বাজার থেকে চলে যাবে- তা যে কোনো কোম্পানির নিজস্ব সিদ্ধান্ত। এনটিটি ডোকোমো শেয়ার বিক্রির অনুমোদন চাইলে তা দেওয়া হবে।‘ 

তিনি আরও বলেন, ‘তারা চলে যাচ্ছে, কিন্তু বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ খাতে বিনিয়োগের জন্য কয়েকটি বিদেশি কোম্পানি অপেক্ষা করছে। বাংলাদেশে এখন লাভজনক বিনিয়োগের বাজার ও পরিবেশ দুটোই রয়েছে।‘ 

২০০৮ সালে তৎকালীন একটেলের (বর্তমানে রবি) ৩০ শতাংশ শেয়ার কিনে নিয়ে বাংলাদেশের বাজারে আসে এনটিটি ডোকোমো। পরে বাংলাদেশে বিনিয়োাগের পরিবেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলে ২০১৩ সাল থেকে এনটিটি ডোকোমো তাদের বিনিয়োগ প্রত্যাহার করতে শুরু করে।  সর্বশেষ তাদের শেয়ারের পরিমাণ ছিল মাত্র ৬ দশমিক ৩১ শতাংশ। এই শেয়ার কিনে নিয়ে একীভূত রবিতে ভারতীয় এয়ারটেলের শেয়ারের পরিমাণ দাঁড়াল ৩১ দশমিক ৩১ শতাংশ। এছাড়া রবিতে মালয়েশিয়ার আজিয়াটার শেয়ারের পরিমাণ ৬৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ। 

এর আগে বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ খাতে বিনিয়োগের পর শেয়ার বিক্রি করে চলে গিয়েছিল সিঙ্গাপুরের সিংটেল, মিশরের ওরাসকম এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের ওয়ারিদ টেলিকম।