তিন মাস আগে চট্রগ্রামে বেড়াতে গিয়ে চুরি হওয়া মুঠোফোন সেট ফেরত পেয়েছেন বরিশালের এক শিক্ষার্থী। বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি) তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ফোনসেটটি উদ্ধার করেছে। বিএমপি উপ কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আনাম মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে ইনফ্রা পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউটের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন খান শাওনের হাতে তার চুরি হওয়া মুঠোফোন সেটটি হস্তান্তর করেন।

উপ-পুলিশ কমিশনার মো. খাইরুল আলম জানান, শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন খান শাওন গত ৪ অক্টোবর বন্ধুদের সঙ্গে বরিশাল থেকে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার, রাঙ্গামাটির সাজেক, বান্দরবান এবং সেন্টমার্টিন বেড়াতে যান। সফরের প্রথমদিন চট্টগ্রাম অক্সিজেন মোড়ে তার সঙ্গে থাকা মুঠোফোন সেটটি হারিয়ে যায়। মূল্যবান ফোনসেট হারিয়ে যাওয়ায় প্রথম দিনেই আনন্দ ভ্রমণ বিষাদে পরিণত হয় শাওনের।

বরিশাল ফিরে বিষয়টি মেট্রো পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলমকে জানান তিনি। তার নির্দেশে বরিশাল বিমানবন্দর থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) মো. বারেক হোসেনকে হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোন উদ্ধারের দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরে এএসআই বারেক তথ্যপ্রযুক্তি এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটনের ডবল মুরিং থানা পুলিশের সহায়তায় গত ২১ নভেম্বর কদমতলীর ব্যবসায়ী আক্তার হোসেনের কাছ থেকে মুঠোফোনটি উদ্ধার করেন। তবে ওই ব্যবসায়ী যার কাছ থেকে ফোন সেটটি ক্রয় করেছেন তাকে শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

হারিয়ে যাওয়া মুঠোফোন ৩ মাস পর হাতে পেয়ে আবেগাপ্লুত শিক্ষার্থী শাওন বলেন, হারিয়ে যাওয়া ফোন সেটটি ফিরে পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। পুলিশের আন্তরিকতার কারণে ফোন সেটটি ফিরে পেয়েছেন। তিনি পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বিএমপি’র উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ পুলিশ অনেক এগিয়ে। অপরাধীর চেয়ে পুলিশ অনেক শক্তিশালী। কেউ অপরাধ করে ছাড় পাবে না।