ফেসবুকে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্মমহাসচিব মামুনুল হকের পক্ষে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ উদ্দিন ওরফে ফয়েজ মারজানকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। 

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সোমবার রাতে বিষয়টি জানানো হয়। সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকায় তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

স্থানীয় ছাত্রলীগের এক নেতা জানান, হেফাজত নেতা মামুনুল হককে  নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের একটি রিসোর্টে নারীসহ ঘেরাওয়ের পর ফয়েজ মারজান তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একাধিক পোস্ট দেন।

 সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রিপন জানান, ফেসবুকে ফয়েজের উগ্রপন্থী এবং দলীয় শৃঙ্খলার পরিপন্থী পোস্ট দেখে জেলা থেকে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে বহিষ্কারের জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাকে সাংগঠনিক পদ ও দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বহিষ্কারর করা হয়েছে।

ফয়েজ উদ্দিনের (ফয়েজ মারজান) সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার জাউয়াবাজার গ্রামের আমির আলীর ছেলে। তিনি জাউয়াবাজার ডিগ্রি কলেজে পড়াশোনা করেছেন। বহিষ্কারের বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি তিনি।