ব্যবসায়িক সক্ষমতা ও পরিধি বাড়ানোর লক্ষ্যে উন্নতমানের সফটওয়্যার তৈরির পাশাপাশি ইন্টেলিজেন্ট বাহনের সরঞ্জামে বিনিয়োগ বাড়াবে হুয়াওয়ে। এছাড়াও অ্যাডভান্স প্রসেস টেকনিকের ওপর কম নির্ভরশীল ব্যবসাখাতে বেশি মননিবেশ করবে এই প্রতিষ্ঠান। 

মঙ্গলবার শেনঝেনে অনুষ্ঠিত ১৮তম গ্লোবাল অ্যানালিস্ট সামিটে এ ঘোষণা দেন হুয়াওয়ের রোটেটিং চেয়ারম্যান এরিক শু।

শিল্প ও আর্থিক বিশ্লেষক, খাত সংশ্লিষ্ট নেতারা ও মিডিয়া প্রতিনিধিসহ চারশ’র বেশি অতিথি সামিটে উপস্থিত ছিলেন। এর পাশাপাশি, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশ্লেষক ও মিডিয়া প্রতিনিধিরা অনলাইনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

সেশনে এরিক শু হুয়াওয়ের সামনে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে পাঁচটি কৌশলগত উদ্যোগের কথা বলেন। হুয়াওয়ের ২০২০ সালের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশের পরে ঘোষণাটি দেওয়া হয়। আর্থিক প্রতিবেদনে দেখা যায় যে, আগের বছরগুলোর তুলনায় ধীরগতিতে হুয়াওয়ের প্রবৃদ্ধি ঘটেছে। 

ফলে এখন থেকে ইন্টেলিজেন্ট যানবাহনে অধিক বিনিয়োগের পাশাপাশি হুয়াওয়ে নিম্নোক্ত বিষয়গুলোর ওপর জোর দেবে- ১. মোবাইল যোগাযোগের বিকাশে ফাইভজির ভ্যালু বৃদ্ধি করা এবং খাত সংশ্লিষ্ট অংশীদারদের সঙ্গে ৫.৫ জির প্রসার। ২. সবক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের একটি নিরবচ্ছিন্ন, গ্রাহককেন্দ্রিক এবং ইন্টেলিজেন্ট অভিজ্ঞতা প্রদান। ৩. স্বল্প-কার্বন-বিশ্ব গড়ে তুলতে জ্বালানি ব্যয় হ্রাসের লক্ষ্যে উদ্ভাবন। ৪. সাপ্লাই কন্টিনিউটি চ্যালেঞ্জ শনাক্ত করা।

শু বলেন, ‘সামনে এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা আরও কঠিন ও অস্থিতিশীল বৈশ্বিক পরিবেশে নিজেদের খুঁজে পাব। পুনরায় কোভিড-১৯ এর প্রকোপ ও ভূরাজনৈতিক অনিশ্চয়তা প্রতিটি সংস্থা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দেশের জন্য চলমান চ্যালেঞ্জ। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা যেসব সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি, ডিজিটাল প্রযুক্তি সেগুলোর সমাধান দিতে পারবে। তাই আমরা আমাদের গ্রাহক ও অংশীদারদের সঙ্গে উদ্ভাবন ও ডিজিটাল রূপান্তরকে এগিয়ে নিয়ে যাব, যাতে পুরোপুরি কানেক্টেড ও ইনটেলিজেন্ট বিশ্ব গড়ে তুলতে প্রতিটি ব্যক্তি, বাড়ি ও প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটাল মাধ্যমের আওতায় আনা যায়।’

২০০৪ সালে প্রথম হুয়াওয়ে গ্লোবাল অ্যানালিস্ট সামিট অনুষ্ঠিত হয়। তখন থেকেই প্রতি বছর এ সামিট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ‘বিল্ডিং আ ফুললি কানেক্টেড, ইন্টেলিজেন্ট ওয়ার্ল্ড’ শিরোনামে ১২ এপ্রিল শুরু হওয়া এ বছরের সামিট  ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। সামিটে বেশকিছু ব্রেকআউট সেশন হবে, যেখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিল্প বিশেষজ্ঞরা তাদের চিন্তা-ভাবনা তুলে ধরবেন এবং ভবিষ্যৎ ট্রেন্ড নিয়ে আলোচনা করবেন।

মন্তব্য করুন