মডেল আপডেট করলেও ব্যাটারি আকারে বা ব্যাটারি সক্ষমতার দিক থেকে পরিবর্তন আসেনি আইফোনে। যেমন, আইফোন ১১ প্রো-তে ছিল ৩ হাজার ৪৬ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি, বিজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল চলবে টানা ১৮ ঘণ্টা। আর আইফোন ১২-তে ছিল ২ হাজার ৮১৫ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি, বলা হয়েছিল স্মার্টফোন চলবে ১৭ ঘণ্টা। নতুন আইফোন ১৩ থেকে বদলে যেতে পারে এ বিষয়টি।

তথ্য ফাঁসকারী হিসেবে সুপরিচিত ‘লাভটুড্রিম’ সম্প্রতি এক পোস্টে জানিয়েছে, আসন্ন আইফোন ১৩ মডেলে আইফোন ১২-এর চেয়ে উন্নত ব্যাটারির দেখা মিলবে। আইফোন ১৩ মিনিতে থাকবে ২ হাজার ৪০৬ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি, আইফোন ১৩ এবং ১৩ প্রো’তে থাকবে ৩ হাজার ৯৫ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি। আর আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সে থাকবে ৪ হাজার ৩৫২ মিলিঅ্যাম্প আওয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি। খবর ম্যাশএবলের।   

তথ্যগুলো আদৌ সত্যি হলে, আইফোনের ব্যাটারিতে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন চোখে পড়বে। তবে, আরও ভালো ব্যাটারি জীবনের দেখা না-ও মিলতে পারে। কারণ খবর রটেছে আইফোন ১৩-তে উচ্চমাত্রার রিফ্রেশ রেট এবং সবসময় সচল ডিসপ্লের দেখা মিলবে। এতে করে আরও বেশি ব্যাটারি ক্ষমতার প্রয়োজন পড়বে।  

এ ছাড়াও শোনা যাচ্ছে, আইফোন ১৩-তে এক টেরাবাইট স্টোরেজ অপশন, এমএমওয়েভ ৫জি সক্ষমতা এবং ছোট আকারের নচের দেখা মিলবে বলেও শোনা যাচ্ছে।


মন্তব্য করুন