জালিয়াতি করে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পাবনার ঐতিহ্যবাহী সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক হুমায়ুন কবির মজুমদারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

গত ৭ জুন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-পাবনার উপসহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বাদী হয়ে কমিশনের এ কার্যালয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

এজাহারে বলা হয়, আসামি অসৎ উদ্দেশ্যে প্রতারণা, জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তি-সংক্রান্ত ভুয়া আবেদনপত্র তৈরি ও জাল বিল-ভাউচার তৈরি করে পরে সেগুলো নিজেই অনুমোদন দিয়ে কলেজের একাধিক তহবিল থেকে ৫৬ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন।

এতে আরও বলা হয়, কলেজ ছাত্র সংসদ, উন্নয়ন তহবিল, বিবিধ তহবিল, ভর্তি কার্যক্রম ও ফরম পূরণ তহবিল থেকে মোট ৫৬ লাখ আট হাজার ৯৮৬ টাকা টাকা অগ্রণী ব্যাংক পাবনা সদর কলেজগেট শাখায় কলেজের হিসাব থেকে উত্তোলন করে আত্মসাৎ করা হয়। অধ্যক্ষ জালিয়াতি করে অর্থ আত্মসাৎ করে সরকারের সঙ্গে অপরাধজনক বিশ্বাস ভঙ্গ করেছেন। তার বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১ ধারা ও ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

অধ্যক্ষের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ :পাবনা অফিস জানায়, অধ্যক্ষ ড. হুমায়ুন কবির মজুমদারের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসের প্রশাসনিক ভবনের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন তারা। পরে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের সামনের সড়কে গিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, শতবর্ষের ঐতিহ্যবাহী এই কলেজের সুনাম সারাদেশে রয়েছে। কিন্তু এই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক হয়েও বিভিন্ন তহবিলের অর্থ আত্মসাৎ করে কলেজের সম্মান ধুলায় মিশিয়ে দিয়েছেন। অধ্যক্ষ সাধারণ শিক্ষার্থীদের কলেজ তহবিলের জমা করা অর্থ আত্মসাৎ করে শুধু এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই নয়, গোটা শিক্ষকসমাজের মুখে কালিমা লেপন করেছেন।