এশিয়ান লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ডসের (এএলএ) অর্গানাইজেশনাল অ্যাওয়ার্ডস বিভাগে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের পুরস্কার পেয়েছে গ্রামীণফোন। 

বৃহস্পতিবার সম্মানজনক এ আয়োজনের ১৯তম আসর অনুষ্ঠিত হয়। গ্রামীণফোনের কর্মীদের সুস্থতা, সব কর্মীকে সমান অগ্রাধিকার দেওয়াসহ অন্তর্ভুক্তিমূলক সংস্কৃতি বিকাশে প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা ও দৃষ্টিভঙ্গির কারণে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। কোম্পানির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এশিয়ায় ব্যবসায়িক নেতৃত্ব বিষয়ে পৃষ্ঠপোষকতা এবং এ ক্ষেত্রে ভালো উদ্যোগের প্রচারে এএলএ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। ২০১১ সাল থেকে এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। এ বছর অনুষ্ঠানটি হয় ভার্চুয়ালি। এতে এএলএর দক্ষ জুরি কাউন্সিল নতুন সম্ভাবনা উন্মোচনের লক্ষ্যে গ্রামীণফোনের প্রচেষ্টাকে অভিনন্দন জানায়। খাতসংশ্লিষ্ট তিন শতাধিক ঊর্ধ্বতন নেতা এ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

গ্রামীণফোনের প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভির হোসেন বলেন, 'কর্মীদের সুস্থতা, অন্তর্ভুক্তিমূলক সংস্কৃতি, প্রজেক্ট অটোমেশন, ডিজিটালভাবে পরিচালিত মানবসম্পদ ও নেতৃত্ব বিকাশকে অগ্রাধিকার দিয়ে বিবেচনা করে গ্রামীণফোন; যা আমাদের দায়িত্বশীল ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান হিসেবে এ খাতে এগিয়ে থাকতে সহায়তা করেছে। এএলএ ২০২১ অর্জন আমাদের জন্য অত্যন্ত সম্মানের।'



বিষয় : গ্রামীণফোন শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান পুরস্কার

মন্তব্য করুন