চীনের রোবটযান জুরং মঙ্গলগ্রহ থেকে যে নতুন ছবিগুলো পাঠিয়েছে তার মধ্যে একটি সেলফিও আছে। গত মাসে লালগ্রহে পৌঁছানো এই রোভার সেলফি তোলার জন্য প্রথমে মাটিতে তারবিহীন একটি ক্যামেরা বসায়। তারপর ছয় চাকায় কিছুটা পিছিয়ে গিয়ে নিজের ছবিটি তোলে। ছবিতে জুরংয়ের ডান পাশে যে রকেট চালিত প্ল্যাটফর্মটি দেখা যায়, সেটির পিঠে চেপেই মঙ্গলের বুকে নেমেছিল জুরং। রোভার আর প্ল্যাটফর্ম দুই জায়গাতেই শোভা পাচ্ছে চীনের লাল পতাকা। জুরংয়ের পাঠানো দ্বিতীয় ছবিতে রোভারটির নিজের প্ল্যাটফর্মকেই দেখানো হয়েছে। লাল ধুলোর ওপর রয়েছে তার ঘুরে বেড়ানোর চিহ্ন সংবলিত ছবিও। মঙ্গলের উত্তর গোলার্ধের বিস্তৃত ভূখণ্ডের নাম দেওয়া হয়েছে ইউটোপিয়া পল্গানিশা। সেখানেই চীনের রোবটযানটি বিচরণ করছে। জুরংয়ের সাফল্য উদযাপনের জন্য গত শুক্রবার ছবিগুলো প্রকাশ করেছে চীনা স্পেস এজেন্সি।

মঙ্গলের বুক থেকে ৯০ দিন পর্যন্ত বিভিন্ন তথ্য পাঠাতে পারবে সৌরশক্তি চালিত রোভার জুরং। এটি দেখতে অনেকটা যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার রোভার স্পিরিট ও অপরচুনিটির মতোই। ২৪০ কেজি ওজনের জুরংয়ের নাম দেওয়া হয়েছে চীনাদের অগ্নিদেবতার নামে। এই রোভারে আছে ছয় ধরনের বৈজ্ঞানিক গবেষণার সরঞ্জাম। সৌরজগতের চতুর্থ গ্রহে কখনও প্রাণের অস্তিত্ব ছিল কিনা, তা খুঁজে বের করা এই অভিযানের অন্যতম লক্ষ্য। সূত্র :বিবিসি।