ড্রোন এবং আকাশে ভাসমান অন্যান্য লক্ষ্যবস্তু ধ্বংসে উড়ন্ত লেজার অস্ত্র বানাচ্ছে ইসরায়েল। এটি বানাতে এরই মধ্যে জোট বেঁধেছে ইসরায়েলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রতিরক্ষা ঠিকাদার এলবিট সিস্টেমস লিমিটেড।

২০২৫ নাগাদ এ অস্ত্রের নমুনা তৈরি হয়ে যাবে বলে আশা করছেন ইসরায়েলের কর্মকর্তারা। সোমবার এ ব্যাপারে জানিয়েছেন তারা। এখনও এর কোনো নাম ঠিক করেনি তারা। এটি চালকবিহীন হবে এবং ইসরায়েলের একাধিক ধাপের আকাশ প্রতিরক্ষার একটি অংশ হবে। বর্তমানে আকাশ প্রতিরক্ষায় আয়রন ডোম সিস্টেম ব্যবহার করছে তারা। খবর রয়টার্সের

ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রলায়ের গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের ব্রিগেডিয়ার-জেনারেল ইয়ারিভ রতেম জানিয়েছেন, এরই মধ্যে লেজারের প্রাথমিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। হালকা ওজনের উড়োজাহাজে করে আকাশে উড়ানো হয়েছিল এটিকে।

তিনি বলেছেন, “আমরা যতদূর জানি আমরাই হয়তো প্রথম, তবে এ ধরনের উদ্ভাবনের চেষ্টা করেছে এবং সফল হয়েছে এমন প্রথম দেশগুলোর মধ্যে আমরা রয়েছি তা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি।”